বিমানবন্দর সড়কে বাস চাপায় ২ শিক্ষার্থী নিহত, অর্ধশতাধিক বাস ভাঙচুর

বাংলাদেশ

(ঢাকা, বাংলাদেশ) রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে একটি যাত্রীবাহী বাসের চাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও ১৩ জন  শিক্ষার্থী। কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপতালে তাদের চিকিৎসা চলছে। এর মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। এ ঘটনায় অর্ধ শতাধিক গাড়ি ভাঙচুর করেছে ক্ষুদ্ধ স্থানীয় জনতা ও শিক্ষার্থীরা। রোববার দুপুর ১ টার দিকে ঢাকার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সামনের বিমানবন্দর সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত দুইজনই শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের শিক্ষার্থী।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঘটনার সময় ওই কলেজের শিক্ষার্থীরা বাসে উঠার জন্য ফ্লাইওভারের গোড়ায় ফুটপাতে দাঁড়িয়ে ছিল। এ সময় জাবালে নূর পরিবহনের একটি বাস এলে শিক্ষার্থীরা তাতে ওঠার চেষ্টা করে। ওই বাসকে যাত্রী নিতে দেখে পেছন থেকে আসা জাবালে নূর পরিবহনের আরেকটি বাস দ্রুত গতিতে বাম পাশ দিয়ে ঢুকে ফুটপাতে থাকা শিক্ষার্থীদের চাপা দেয়। এতে ফুটপাতের একটি গাছও ভেঙে গেছে। খবর পেয়ে প্রতিষ্ঠানের অন্য শিক্ষার্থীরা এসে সড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করে এবং মিরপুর থেকে বনানী হয়ে গুলশান, উত্তরা ও কুড়িল হয়ে বাড্ডার দিকে আসা অর্ধ শতাধিক বাস ভাঙচুর করে। এ সময় ওই অঞ্চলে যান চলাচল বন্ধ হয়ে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়।

বিকাল সোয়া ৩টার দিকেও বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীরা র‌্যাডিসন ব্লু হোটেলের পাশ দিয়ে রাস্তায় চলাচলকারী মিরপুরগামী বাস বাছাই করে ভাঙচুর করেছে। এমনকি ফ্লাইওভারে উঠা গাড়িগুলোকেও ভাঙচুর অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। পুরো রাস্তায় কেবল গাড়ির কাচ আর কাচ।

ক্যান্টনমেন্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী শাহান হক প্রথম আলোকে বলেন, দুজন নিহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত। আরেকজনের অবস্থা গুরুতর। নিহত হওয়ার পরপর ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা বাস ভাঙচুর করে। যানবাহন থামিয়ে দেয়। সড়ক অবরোধ করে। এতে সড়কে প্রচণ্ড যানজট সৃষ্টি হয়।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *