নির্মাণ সম্পন্ন ইলন মাস্কের মঙ্গলগামী ‘স্টারশিপ’ রকেট

আমেরিকা

(টেক্সাস, যুক্তরাষ্ট্র) লালগ্রহ মঙ্গল অভিযানে ‘স্টারশিপ’ প্রোটোটাইপ রকেট নির্মাণ নির্মাণ শেষ করেছেন স্পেসএক্স প্রধান ইলন মাস্ক। স্টিল নির্মিত রকেটের প্রথম ছবিটি প্রকাশ করেছেন তিনি। এই রকেটটিই একদিন মানুষ বহন করে মঙ্গলে যাত্রা করবে। শনিবার নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে তিনি ছবিটি আপলোড করেন। কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই টেক্সাসের পরীক্ষা েেকন্দ্রে পরীক্ষার অপেক্ষায় রয়েছে বলেও জানিয়েছেন স্পেসএক্স প্রধান। প্রতিষ্ঠানের পরবর্তী প্রজšে§র তিনটি ‘র‌্যাপটর’ ইঞ্জিন ব্যবহার করা হবে রকেটটির পরীক্ষায়। খবর এএফপির।

২০১৮ সালে মহাকাশে ২০ বারের বেশি রকেট পাঠিয়েছে স্পেসএক্স। এ ছাড়া ভবিষ্যতের জন্য আরও বড় এবং ভালো পরিকল্পনা নিয়েও কাজ করেছে প্রতিষ্ঠানটি। স্টারশিপ রকেটটি আগে ‘বিগ ফ্যালকন রকেট’ (বিএফআর) নামেই পরিচিত ছিল। রকেটটিতে করে মানুষকে চাঁদের চারিদিকে ভ্রমণে নেয়ার লক্ষ্য রয়েছে স্পেসএক্স-এর। এছাড়া মহাকাশ দিয়ে দ্রুত গতির আন্তর্জাতিক ফ্লাইট পরিচালনারও উদ্দেশ্য রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির।

মাস্কের টুইটে পোস্ট করা ছবি থেকে নতুন এই রকেটটি নিয়ে কিছু ধারণা পাওয়া গেছে। বলা হচ্ছে স্যাটার্ন ৫-এর চেয়ে বড় এবং আরও বেশি শক্তিশালী হবে স্টারশিপ রকেটটি। স্যাটার্ন ৫ রকেটে করেই অ্যাপোলো নভোচারীদের চাঁদে পাঠানো হয়। ছবিতে দেখা গেছে স্টারশিপ রকেটের শুধু সামনের দিকটাই কয়েক তলা লম্বা। টুইটে মাস্ক বলেন, টেক্সাসে স্পেসএক্স কেন্দ্রে তৈরি হচ্ছে বিশাল প্রটোটাইপ রকেটটি। এটির উপরিভাগ স্টেইনলেস স্টিলের। টুইটের মন্তব্যে তিনি বলেন, “উচ্চ তাপে হালকা কার্বন ফাইবারের চেয়ে স্টেইনলেস স্টিল ভালো কাজ করবে, বিশেষ করে পৃথিবীর ফেরার সময় বায়ুমণ্ডলে প্রবেশের মুহূর্তে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *