নিউজ এইটিনকে শেখ হাসিনা, তিস্তায় সমস্যা দিদিমণি, ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো মিয়ানমারের

বাংলাদেশ লিড নিউজ

(ঢাকা, বাংলাদেশ) তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তির ক্ষেত্রে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির অবস্থানকে সহযোগিতামূলক আখ্যা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সমস্যা হচ্ছে দিদিমণিকে (পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়) নিয়ে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সিএনএন নিউজ এইটিনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি আরও বলেছেন, মিয়ানমারের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক ভালো। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন সম্ভব করে তুলতে ভারতের উচিত মিয়ানমারের ওপর চাপ দেয়া।

সংবাদমাধ্যমটির পক্ষে জাকা জ্যাকবের প্রশ্ন: রোহিঙ্গাদের বিষয়ে আপনি বলেছেন, চীন ও ভারতের মতো বড় প্রতিবেশী দেশগুলো যদি আরও একটু বেশি ভূমিকা রাখত তাহলে আপনার সরকারের পক্ষে বিষয়টি সামলানো সহজ হতো। রোহিঙ্গাদের বিষয়ে আপনি চীন ও ভারতের কাছে কী ধরনের ভূমিকা প্রত্যাশা করেন?

শেখ হাসিনা: এ প্রশ্নের জন্য অনেক ধন্যবাদ। রোহিঙ্গা সংকট আসলেই আমাদের জন্য অনেক বড় একটি বিষয়। আশ্রয় নেওয়া ১০ লাখেরও বেশি মানুষ আমাদের জন্য অনেক বড় চাপ। আমরা চাই, বিষয়টির দ্রুত সমাধান হোক এবং রোহিঙ্গারা তাদের নিজেদের দেশে ফিরে যাক।

আমি মনে করি, বড় প্রতিবেশী দেশ হিসেবে এক্ষেত্রে ভারতের ভূমিকা রাখা দরকার। তাদের সঙ্গে মিয়ানমার সরকারের ভালো সম্পর্ক। রোহিঙ্গাদের নিজেদের দেশে ফিরে যাওয়া নিশ্চিত করতে ভারত মিয়ানমারের বিরুদ্ধে চাপ প্রয়োগ করতে পারে, বাস্তব সম্মত পদক্ষেপ নিতে পারে বা সমস্যার সমাধানে তাদেরকে আলোচনায়ও ডাকতে পারে, রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন নিশ্চিত করতে ভারতের সহযোগিতা আমাদের দরকার।

সিএনএন নিউজ এইটিন: ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে থাকা অমীমাংসিত সমস্যাগুলোর একটি তিস্তার পানি বণ্টন। আপনি কি মনে করেন, তৃতীয়বার ক্ষমতায় আসার এই মেয়াদে বিষয়টির সমাধান হয়ে যাবে?

শেখ হাসিনা: নিশ্চয়ই। আমরা সেটাই প্রত্যাশা করি। কিন্তু বিষয়টি নির্ভর করছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার ও রাজ্য সরকারের ওপর। আমি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির পদক্ষেপের প্রশংসা করতে চাই, তিনি বাস্তবসম্মত পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। তার ভূমিকা সহযোগিতামূলক।

সমস্যা হচ্ছে দিদিমনিকে নিয়ে। আপনারাও সেটা জানেন। আমি তার সঙ্গেও কথা বলেছি। তিনি এক পর্যায়ে রাজিও হয়েছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত চুক্তিটি বাস্তবায়ন করা যায়নি। আমি আশা করি, ভবিষ্যতে এর সমাধান হয়ে যাবে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সিএনএন নিউজ এইটিনকে দেওয়া বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাক্ষাৎকার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *