মাসুদ আজহারকে ‘বিশ্ব সন্ত্রাসী’ ঘোষণা করতে জাতিসংঘে প্রস্তাব যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সের, ভেটো দেয়ার ইঙ্গিত চীনের

অন্যান্য

(ওয়াশিংটন, যুক্তরাষ্ট্র) জইশ-ই-মোহাম্মদ নেতা মাসুদ আজহারকে বৈশ্বিক সন্ত্রাসী তালিকাভুক্ত করতে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সের আনা নতুন প্রস্তাবে ভেটো দেয়ার ইঙ্গিত দিয়েছে চীন।  বুধবার ১৫ সদস্যের নিরাপত্তা পরিষদে এই প্রস্তাব আনে পরিষদের স্থায়ী সদস্য তিন দেশ। এই তালিকাভুক্ত হলে পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি গোষ্ঠী জইশ-ই-মোহাম্মদ নেতার ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে। এছাড়া তার সম্পত্তিও জব্দ করা হবে।

খবরে বলা হয়, ভেটো ক্ষমতা তিন দেশের এই প্রস্তাব বিবেচনা করতে দশ কর্মদিবস সময় পাবে নিরাপত্তা পরিষদ। অতীতে মাসুদ আজহারের বিষয়ে আনা প্রস্তাবে নিজের ভেটো ক্ষমতা প্রয়োগ করে আটকে দিয়েছে চীন।

গত দশ বছরের মধ্যে এনিয়ে চতুর্থবারের মতো জাতিসংঘে মাসুদ আজহারকে সন্ত্রাসী তালিকাভুক্ত করার প্রস্তাব আনা হলো। মুম্বাই হামলায় সম্পৃক্ততার অভিযোগে ২০০৯ সালে মাসুদ আজহারকে সন্ত্রাসী তালিকাভুক্ত করার প্রস্তাব দেয় ভারত। ২০১৬ সালে পাঠানকোট বিমানঘাঁটিতে হামলার পর আবারও জাতিসংঘের ১২৬৭ নিষেধাজ্ঞা কমিটিতে তিন স্থায়ী সদস্যকে সঙ্গে নিয়ে তাকে নিষিদ্ধ করবার প্রস্তাব দেয় ভারত।

২০১৭ সালেও তিন স্থায়ী সদস্য দেশ আবারও একই ধরনের প্রস্তাব আনে। প্রতিবারই নিষেধাজ্ঞা কমিটিতে ভেটো ক্ষমতা প্রয়োগ করে ভারতের প্রস্তাব আটকে দেয় চীন। তবে এবার নতুন প্রস্তাবে চীন কিভাবে ভোট দেয় তা আগ্রহের সঙ্গে বিবেচনা করা হচ্ছে। পাকিস্তানের ঘনিষ্ট মিত্র চীন বরাবরই মাসুদ আজহারকে সন্ত্রাসী তালিকাভুক্ত করতে ভারত ও অন্য স্থায়ী সদস্য দেশগুলোর প্রস্তাবে ভেটো দিয়েছে। এসব প্রস্তাবে তারা কৌশলগত বিরোধিতার কথা জানায়।

নিরাপত্তা পরিষদের প্রেসিডেন্ট হিসেবে কোন দেশ দায়িত্ব পালন করছে তা প্রস্তাব অনুমোদনের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। সদস্যদেশগুলোর মধ্যে পর্যায়ক্রমে আবর্তিত হয় সভাপতির দায়িত্ব। গত মার্চে পরিষদের সভাপতি নেয় ফ্রান্স। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি কাশ্মিরের পুলওয়ামায় ভারতের ‘সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের’ গাড়িবহরে আত্মঘাতী বোমা হামলায় বাহিনীটির অন্তত ৪০ জন সদস্য প্রাণ হারান। পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী জইশ-ই-মোহাম্মদ হামলার দায় স্বীকার করে। ওই হামলার পরই মাসুদ আজহার ও তার গোষ্ঠীকে সন্ত্রাসী তালিকাভুক্ত করার প্রস্তাবে সমর্থন দিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ভারত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *