যতদিন পাকিস্তান সন্ত্রাসীদের আশ্রয় দেবে, ততদিন আমরা হামলা করব: ভারত

ভারত

(নয়াদিল্লি, ভারত) পাকিস্তান যতদিন সন্ত্রীসীদের আশ্রয় দেবে ততদিন সেই সন্ত্রাসীদের ঘাঁটি লক্ষ্য করে হামলা চালানো হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে ভারত। ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনার মধ্যে প্রথমবারের মতো সামরিক বাহিনী আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন দেশটির সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর কর্মকর্তারা। সেসময় পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে মুক্তি দেয়ার সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানানো হয়। খবর টাইমিস অব ইন্ডিয়ার।

মঙ্গলবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) ভারতীয় বিমান বাহিনী পাকিস্তানের আকাশসীমায় ঢুকে বিমান থেকে বোমাবর্ষণ করে। পরদিন বুধবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে দুটি ভারতীয় যুদ্ধবিমান ভূপাতিত ও এক পাইলটকে আটক করে পাকিস্তান। পাল্টাপাল্টি হামলায় দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, ‘উত্তেজনা নিরসনে ভূমিকা রাখলে আমরা ভারতীয় পাইলটকে হস্তান্তর করতে প্রস্তুত’।

ভারতীয় বিমান বাহিনীর এয়ার মার্শাল আর জি কে কাপুর বলেন, ‘আমরা খুবই খুশি যে অভিনন্দন মুক্তি পাচ্ছেন। আমরা তার অপেক্ষায় আছি।’ কর্মকর্তারা জানান, পাকিস্তানের যেকোনও পদক্ষেপের জন্য তারা প্রস্তুত আছেন। নৌবাহিনীর রিয়ার অ্যাডরিাল ডিএস গুজরাল বলেন, ‘আমরা পাকিস্তানে যেকোনও পদক্ষেপের জন্য প্রস্তুত এবং ব্যবস্থা নেওয়ার জন্যও প্রস্তুত। আমরা আমাদের জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে চাই।

বৃহস্পতিবার ভারতীয় পাইলট অভিনন্দনকে মুক্তির ঘোষণা দেওয়ার পর এই সংবাদ সম্মেলন দুই ঘণ্টা পিছিয়ে দেওয়া। সম্মেলন শুরুর পর এক সাংবাদিক প্রশ্ন করেন যে পাকিস্তানের এই পদক্ষেপকে শান্তির নিদর্শন হিসেবে দেখা হচ্ছে কি না। জবাবে তারা বলেন, জেনেভা কনভেনশনের আওতায় পাকিস্তানি পদক্ষেপ হিসেবে দেখা হচ্ছে একে।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি কাশ্মিরের পুলওয়ামায় ভারতের ‘সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের’ গাড়িবহরে আত্মঘাতী বোমা হামলায় বাহিনীটির অন্তত ৪০ জন সদস্য প্রাণ হারান। পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী জইশ-ই-মোহাম্মদ হামলার দায় স্বীকার করে। মঙ্গলবার সেই জইশ-ই মোহাম্মদের ঘাঁটি ধ্বংসের কথা বলেই ৭১-পরবর্তী ইতিহাসে প্রথমবারের মতো পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরের আকাশসীমায় ঢুকে বিমান হামলা চালায় ভারত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *