ভারতের রাজস্থানের কারাগারে এক পাকিস্তানি বন্দীকে বেধড়ক পিটিয়ে হত্যা!

ভারত

ভারতের রাজস্থানের কারাগারে এক পাকিস্তানি বন্দীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

নিহত বন্দীর নাম সাকির উল্লাহ ওরফে হানিফ মুহাম্মদ (৫০)। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের রাজস্থানের জয়পুর কেন্দ্রীয় কারাগারে।

রাজস্থান পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (প্রথম) লক্ষণ গৌরের ভাষ্য থেকে বোঝা যায়, গত ১৩ ফেব্রুয়ারি দুপুর ১টার দিকে কারাগারের কক্ষে বসে তিন ভারতীয় বন্দী জোর সাউন্ডে টিভি দেখছিলেন।

কক্ষে সাকিরও ছিলেন। তিনি এক কর্নারে বসা ছিলেন।

টিভি দেখতে থাকা তিন কয়েদিকে তিনি টিভির ভলিউম কমাতে বলেন, এ সময় তারা ক্ষেপে যায় এবং তিনজন মিলে তাকে অব্যাহতভাবে বেধড়ক পেটাতে থাকে।

এক পর্যায়ে তারা বন্দী সাকির উল্লাহর মাথাকে মেঝের মধ্যে ঠুকে দেয়। আর তাতেই মৃত্যু হয় পাক বন্দীর।

এখন পর্যন্ত বিষয়টি তদন্তের পর্যায়ে রয়েছে বলেও জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

জানা গেছে, পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের শিয়ালকোটের বাসিন্দা সাকির উল্লাহকে রাষ্ট্রবিরোধী কার্যকলাপের অভিযোগে ২০১১ সালে ‘আনলফুল অ্যাক্টিভিটিস (প্রিভেনশন) অ্যাক্ট’-এ গ্রেফতার করা হয়। সেই থেকেই গত আট বছর ধরে কারাগারে রয়েছেন সাকির উল্লাহ। এদিকে, ২০১৭ সালে তাকে দোষী সাব্যস্ত করে ২০ বছরের কারাদণ্ডের নির্দেশ দেন ভারতীয় আদালত।

সমালোচকরা বলছেন, ওই বন্দী কেবল পাকিস্তানি হবার কারণেই এমন নির্মম জিঘাংসার শিকার হতে হয়েছে তাঁকে। এদিকে ঘটনার অর্ধ মাস পেরিয়ে গেলেও সুষ্ঠু কোনো তদন্তের খবর পাওয়া যায়নি এখন পর্যন্ত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *