ইমরান খান

ভারতে ইমরান খানের প্রশংসা করে মহাবিপদে প্রফেসর

এশিয়া প্যাসিফিক লিড নিউজ

ভারতের কর্ণাটকের বিজয়পুরা জেলায় এক প্রফেসরকে হাঁটু গেড়ে বসে ক্ষমা চাইতে বাধ্য করেছে বিজেপি এবং এবিভিপি কিছু কর্মী।

ওই প্রফেসরের ‘অপরাধ’, ফেসবুকে দেওয়া পোস্টে তিনি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের প্রশংসা করেছেন।

দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের খবরে বলা হয়েছে, বচন পিতামহ ডা. পিজি হালকাট্টি কলেজ অব ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি-তে পড়ান ওই প্রফেসর, যার নাম সন্দীপ ওয়াথার। ফেসবুক পোস্টের জেরে শনিবার তাকে হাঁটু গেড়ে বসে ক্ষমা চাইতে বাধ্য করা হয়।

সূত্রের খবরে বলা হয়েছে, ফেসবুক পোস্টে ওই প্রফেসর ভারতে যুদ্ধ-পরিস্থিতি সৃষ্টি করার জন্য বিজেপি সরকারের সমালোচনা করেন এবং একইসঙ্গে পরিস্থিতির মোকাবিলায় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ভূমিকার জন্য তার প্রশংসা করেন।

বিজেপি এবং এবিভিপি কর্মীদের দাবি, প্রফেসর সন্দীপ ওয়াথারকে বরখাস্ত করা হোক। ওয়াথারের ফেসবুক পোস্টগুলো ইতোমধ্যে ডিলিট করে দেওয়া হয়েছে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বলছে, ফেসবুকে দু’টি পৃথক পোস্টে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে সাম্প্রতিক উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতি নিয়ে বিজেপি এবং অন্য দক্ষিণপন্থী সমর্থকদের বিরুদ্ধে প্রশ্ন তোলেন ওই প্রফেসর।

“এত কিছুর মধ্যে বেশি বুদ্ধিমান মনে হচ্ছে কাকে? তোমরা…ভক্ত। এই উত্তেজনা যদি আর বাড়ে, লক্ষ লক্ষ জীবন ধ্বংসের কারণ হবে তোমরা। বিজেপি…কোনো লজ্জাই নেই”।

সূত্রের খবরে আরও বলা হয়েছে, ওই প্রফেসর ভয়ে মোবাইল ফোন অফ করে রেখেছেন। এদিকে, বিজিবি কর্মীদের দাবিতে তার কলেজ তাকে বরখাস্তের চিন্তা করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *