পুলিশ

গ্রামবাসীদের সঙ্গে সংঘর্ষে লাঠিচার্জের ছবি তোলায় সাংবাদিকের পিঠেও পুলিশের লাঠি!

বাংলাদেশ লিড নিউজ

নরসিংদীর পলাশে গ্রামবাসী ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষের সময় স্থানীয় এক সাংবাদিক পুলিশের লাঠিচার্জের ছবি তুলতে গেলে তার ওপর লাঠিচার্জ করেছে পুলিশ।

শুক্রবার দুপুরে উপজেলার ঘোড়াশাল পৌর এলাকার বাগপাড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, দুপুরে বাগপাড়া গ্রামে অবস্থিত প্রাণ আরএফএল গ্রুপের একটি কাভার্ডভ্যান প্রতিষ্ঠানটির পাশে সড়কে একটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়।

এতে মোটরসাইকেলে থাকা পৌর এলাকার চরপাড়া গ্রামের রতন মিয়া, জসিম উদ্দিন ও রনি নামে তিন আরোহী গুরুতর আহত হন। এ ঘটনার খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে উত্তেজিত গ্রামবাসী দুর্ঘটনাস্থলের কাভার্ডভ্যান ও প্রাণ আরএফএল গ্রুপের বিভিন্ন স্থাপনায় ভাঙচুর চালায়।

একপর্যায়ে প্রাণ আরএফএল গ্রুপ থেকে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে গ্রামবাসী ও পুলিশের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ বেধে যায়। প্রায় দুই ঘণ্টাব্যাপী ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ইটপাটকেল ছোড়াছুড়ি হয়। এতে পুলিশের তিন সদস্য আহত হলে পুলিশ গ্রামবাসীকে লাঠিচার্জ শুরু করে।

এ সময় সংঘর্ষের ছবি তুলতে গিয়ে পুলিশের লাঠিচার্জে আহত হন স্থানীয় এক সাংবাদিক।

আহত স্থানীয় সাংবাদিক জুয়েল হোসেন জানান, সংঘর্ষের খবর পেয়ে সংবাদ সংগ্রহ করতে যাই।

ঘটনাস্থলে গ্রামবাসীর ওপর পুলিশের লাঠিচার্জের ছবি তুলতে গেলে পুলিশের এক সদস্য আমাকে লাঠি দিয়ে পেটাতে থাকে। আমি সংবাদকর্মী পরিচয় দিলেও তারা আমার কোনো কথা শুনেনি।

এ ব্যাপারে পলাশ থানার এসআই মনির হোসেন বলেন, সাংবাদিকের ওপর হামলার বিষয়টি আমার জানা নেই।

এ ব্যাপারে পলাশ থানার ওসি মকবুল হোসেন মোল্লা জানান, পুরো বিষয়টি এখনও জানা হয়নি। এ বিষয়ে খোঁজখবর নিয়ে পরে জানানো হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *