মাহমুদুর রহমান মান্না

পিঠে দিয়েছি কুলা, কানে দিয়েছি তুলা, সরকার এ রকম বেহায়াঃমান্না

বাংলাদেশ লিড নিউজ

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, আগামী ১১ মার্চ ডাকসু নির্বাচন কেমন হবে? হলের মধ্যে কেন্দ্র, বলবে আপনি চলে যান, ভোট দেওয়া লাগবে না, কিছুই করতে পারবেন না।

তিনি বলেন, আর প্রতিবাদ করে লাভ কী? ওরা বলে প্রতিবাদ যতই করো আমার কানে না ঢুকলেই হয়। ঐ যে বলে, পিঠে দিয়েছি কুলা, কানে দিয়েছি তুলা। সরকার এ রকম বেহায়া।’

শুক্রবার (৮ মার্চ) সন্ধ্যায় রাজধানীর সেগুনবাগিচার ডিআরইউ ভবনের স্বাধীনতা হলে ‘মুক্তি যুদ্ধের চেতনায় মুক্তির লড়াইয়ে ঐক্যবদ্ধ হউন’ শীর্ষক ঘোষণাপত্র প্রকাশ ও আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। সভার আয়োজন করে নাগরিক ঐক্য।

মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন,৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দিন যেভাবে ভোট ডাকাতি হয়েছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) নির্বাচনও সেই পথে যাবে।

যেখানে গায়ের জোর ও ভয়ভীতি দেখিয়ে ভোটের ফলাফল ক্ষমতাসীনরা নিয়ে নেবে।

তিনি বলেন, পত্রিকায় দেখলাম মেয়েরাই নির্ধারণ করবে এই ভোটের ফলাফল। মেয়েরা কী নির্ধারণ করবে? ভয়ে তো ওরা যাবেই না।

আর যদিও যায় তাতে কী? বলে না, আমার চোখের সামনে ভোট দেন। ওরা যদি ভোট দিতে না যায়, তাহলে সেটা বিরাট প্রতিবাদ।

ডাকসুর সাবেক এই ভিপি বলেন, ‘৩০ ডিসেম্বর রাতে ভোট ডাকাতি হয়েছে। এখানে (ডাকসু) তো রাতে ডাকাতি হবে না, ওখানে দিনের বেলায় ভয়ভীতি দেখিয়ে, গায়ের জোরে হলের মধ্যে ভোট হবে, ওরা (সরকার সমর্থিতরা) জিতবে।

১৯টা হল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। তার মধ্যে চার থেকে পাঁচটা অন্যদের দিয়ে দিল। তারপর বলবে গণতান্ত্রিক ফল হয়েছে, তা না হলে ওরা জিতলো কিভাবে?

তিনি বলেন, পুলিশ লীগ ছাড়া আওয়ামী লীগ থাকবে না। পুলিশ লীগ না থাকলে তখন আওয়ামী লীগ থাকবে কিনা সেটা দেখার অপেক্ষায় আছি আমরা।

পুলিশের কাছে এই দেশকে জিম্মি করে রেখেছে আওয়ামী লীগ সরকার।

সরকারের উন্নয়নের সমালোচনা করে মান্না বলেন, এই অর্থনীতি লুটপাটের। উন্নয়ন করছে না, লুটপাট করছে। এমন একটা উন্নয়ন হচ্ছে যেখানে মানুষ চাকরি পাচ্ছে না।

সভায় আরও বক্তব্য রাখেন, চিত্র সাংবাদিক শহীদুল আলম, নাগরিক ঐক্যের উপদেষ্টা এস এম আকরাম, বিকল্পধারা বাংলাদেশের একাংশের সভাপতি অধ্যাপক নুরুল আমিন ব্যাপারি, ঢাবির উন্নয়ন অধ্যয়ন বিভাগের অধ্যাপক রাশেদ আল মাহমুদ, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক সি আর আব্রার প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *