সোমালিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের বেসামরিক লোক নিহতের প্রমাণ পেয়েছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল

আফ্রিকা

(মোগাদিসু, সোমালিয়া) সোমালিয়ায় মার্কিন বিমান হামলায় ২৪ জনেরও বেশি বেসামরিক নাগরিক হতাহতের প্রমাণ পাওয়া গেছে। সম্ভাব্য হতাহতের বিষয়ে কোনো তদন্তও করেনি মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতর পেন্টাগন। আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল মঙ্গলবার এ তথ্য জানিয়েছে। তবে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীর আফ্রিকা কমান্ডের কর্মকর্তারা অ্যামনেস্টির এই দাবি প্রত্যাখ্যান করে জানিয়েছে ২০১৭ সাল থেকে বেসামরিক নাগরিক হতাহতের ১৮টি অভিযোগ তদন্ত করেছে সেনাবাহিনী। এগুলোর কোনোটিরই সত্যতা পাওয়া যায়নি। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

যুক্তরাষ্ট্র ও এর কয়েকটি মিত্র দেশ সোমালিয়ায় আল-কায়েদার সংশ্লিষ্ট গোষ্ঠী আল-শাবাবের ওপর বিমান হামলা চালিয়ে আসছে। হতাহতের তথ্য জানতে দুর্গম এলাকাগুলোতে অধিকার কর্মীদের নিরাপদ প্রবেশ বেশ মুশকিল। সোমালিয়ার এক গোয়েন্দা কর্মকর্তা ও স্থানীয় দুই বাসিন্দা দাবি করেছেন, মার্কিন বিমান হামলায় সোমবার বেসামরিক লোক নিহত হয়েছে।

সোমালি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সামরিক বাহিনীর একটি ড্রোন সন্দেহভাজন সন্ত্রাসীদের একটি গাড়ি লক্ষ্য করে হামলা চালাতে যেয়ে আরেকটি গাড়ির ওপর হামলা চালিয়েছে। ওই গাড়িটিতে বেসামরিক লোকজন ছিল। স্থানীয় দুই বাসিন্দাও একই তথ্য জানিয়েছেন।

লানটা বুরো গ্রামের বাসিন্দা প্রবীণ মোহাম্মদ সিয়াদ জানিয়েছেন, চারজন নিহত হয়েছে, যাদের মধ্যে টেলিকম প্রতিষ্ঠানের এক কর্মী রয়েছে। তিনি বলেন, ‘এরা আমাদের পরিচিত। আল-শাবাবের সঙ্গে তাদের কোনো সংশ্লিষ্টতা ছিল না।’ আরেক বাসিন্দা আব্দুল আজিজ হাজি বলেন, দেহগুলো ভস্মীভূত হওয়ায় মৃতদেহগুলো চেনাও মুশকিল ছিল। তারা ছিল নিরাপরাধ বেসামরিক লোক, যাদেরকে বিনা কারণে আমেরিকানরা হত্যা করেছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *