নওরোজ উদযাপনকালে ইরাকে ফেরি ডুবে ৭১ জনের মৃত্যু

মধ্যপ্রাচ্য

(বাগদাদ, ইরাক) নওরোজ উদযাপনকালে ইরাকের উত্তরাঞ্চলের মসুল শহরের অদূরে টাইগ্রিস নদীতে একটি ফেরি ডুবে অন্তত ৭১ জনের প্রাণহানি হয়েছে। উদ্ধার করা হয়েছে ১৯ শিশুসহ ৫৫ জনকে। বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) নওরোজ (ইরানি নববর্ষ) উদযাপনকালে তারা ফেরিটিতে উঠলে এ ঘটনা ঘটে।

দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ নাইনেভেহের সিভিল ডিফেন্সের প্রধান কর্নেল হুসাম খলিল সংবাদমাধ্যমকে বলেন, নওরোজ উদযাপন করতে বহুসংখ্যক লোক টাইগ্রিস নদীর পাড়ের পর্যটন এলাকায় যায়। সেসময় ধারণক্ষমতার বেশি ফেরিটিতে যাত্রী উঠে গেলে এই দুঃখজনক ঘটনা ঘটে।

উদ্ধার অভিযান চলছে উল্লেখ করে খলিল বলেন, ফেরিটিতে প্রায় দেড়শ মানুষ ছিল। এখন পর্যন্ত ৪৫টি মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এদের মধ্যে নারী এবং শিশু রয়েছে। প্রাণহানির সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। স্থানীয়রা বলছেন বলেন, যান্ত্রিক সমস্যার কারণেই ফেরিটি ডুবেছে। ডুবে যাওয়া লোকদের উদ্ধার করতে ঘটনাস্থলে পর্যাপ্ত নৌকাও ছিল না।

ইরাকে চলমান বর্ষা মৌসুমে আগের বছরগুলোর তুলনায় বেশি বৃষ্টিপাত হওয়ায় টাইগ্রিস নদীতে পানির প্রবাহও অনেক বেশি দেখা যাচ্ছে। প্রাচীন জোরোয়াস্ট্রিয়ান ঐতিহ্যের অংশ হিসেবেই পুরো প্রাচীন পারস্যে (মধ্যপ্রাচ্য থেকে মধ্য এশিয়া) নওরোজ (কুর্দিদের নববর্ষ এবং বসন্তের আগমন) উদযাপন করা হয়ে থাকে। ইরানে পারস্য নববর্ষ হিসেবে এ দিন সরকারি ছুটি থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *