কান্না থামাতে আঠা দিয়ে মুখ বন্ধ করলেন মা

ভারত

(বিহার,ভারত) শিশুরা সবসময় সুন্দর। শিশুদের আদুরে মুখ দেখলেই যে কারো মন চাইবে একটু আদর করে দিতে। মা হলো শিশুর সবচেয়ে বড় আশ্রয়স্থল। শিশুরা কান্না করলে মায়েরা অভিনব সব পদ্ধতিতে কান্না থামানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু এক মা তার ছেলেশিশু কান্না করায় মুখ আঠা দিয়ে বন্ধ করে দিয়েছেন।

মর্মান্তিক ও বর্বর এই ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের বিহার রাজ্যে। মায়ের হাতে নির্মম নির্যাতনের শিকার ওই শিশুর বাবা বলছেন, তিনি অফিস থেকে ফিরে দেখেন তার স্ত্রী শিশুটির মুখ আঠা দিয়ে বন্ধ করে রেখেছে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের এক প্রতিবেদন মায়ের হাতে শিশুর এই ভয়াবহ নির্যাতনের খবর প্রকাশিত হয়েছে।

হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদনে জানানো হয়, শিশুটির বাবা অফিস থেকে বাসায় ফিরে যখন দেখেন তার ছোট্ট ছেলেটির মুখ আঠা দিয়ে বন্ধ করে রাখা হয়েছে তখন দ্রুত তিনি শিশুটিকে হাসপাতালে নিয়ে যান। শিশুটি এখন বিপদমুক্ত বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গেছে।

শিশুটির বাবা বলেন, ‘আমি কিছু কাজ শেষ করে বাড়ি ফিরেছিলাম সেদিন। বাড়িতে এসে দেখি সে (শিশুটি) চুপ করে আছে। কোনো শব্দ করছে না। আমি যখন আমার স্ত্রী শোভাকে তার সম্পর্কে জিজ্ঞেস করি তখন সে বলে যে, শিশুটি কান্না করায় সে তার মুখ আঠা দিয়ে বন্ধ করে দিয়েছে। তাই সে কান্না করতে পারছে না

আশঙ্কামুক্ত হলেও শিশুটি এখনো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তার বড় রকমের কোনো ক্ষতি না হওয়ার স্বস্তি প্রকাশ করেছেন মায়ের হাতে নির্যাতিত ওই শিশুটির বাবা। তবে তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে কিংবা হবে কি না তা জানা যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *