উত্তরায় শিশু গৃহকর্মীর ঝুলন্ত লাশ, হত্যা সন্দেহে বিক্ষোভ

বাংলাদেশ

(ঢাকা, বাংলাদেশ) রাজধানীর উত্তরায় একটি বাড়ি থেকে ১২ বছর বয়সী এক শিশু গৃহকর্মীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শিশুটিকে হত্যা করা হয়েছে অভিযোগে ওই বাড়িটির সামনে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন শিশুটির পরিবারের সদস্য ও এলাকাবাসী। মঙ্গলবার বিকেলে উত্তরার ৩ নম্বর সেক্টরের ১৮ নম্বর সড়কের একটি বাড়ি থেকে বৈশাখী নামের শিশুটির লাশ উদ্ধার করা হয়। খবর স্টার অনলাইনের।

নওগাঁর বৈশাখী বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত রিফাত ফেরদৌসের বাসায় কাজ করত। রিফাত তার স্ত্রী ও এক সন্তান নিয়ে বাড়িটিতে বসবাস করতেন। উত্তরা পশ্চিম থানার ওসি আলী হোসেন খান দ্য ডেইলি স্টারকে এসব তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, খবর পেয়ে ছয়তলা ভবনটিতে গিয়ে পুলিশ বৈশাখীর লাশ গ্রিলের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় পায়।

ওসি আরও বলেন, বৈশাখীর মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে তুরাগ এলাকার বাউনিয়াবাধ বস্তি থেকে তার পরিবার, আত্মীয়-স্বজনসহ বস্তির প্রায় হাজার খানেক মানুষ বাড়িটির সামনে গিয়ে বিক্ষোভ দেখান। তাদের অভিযোগ, বৈশাখীকে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছিল।

৩ নম্বর সেক্টরে বিকেল থেকে প্রায় তিন ঘণ্টা বিক্ষোভে তারা টায়ারে আগুন দিয়ে রাস্তা অবরোধ করেন। এ ব্যাপারে পুলিশ আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেওয়ার পর সন্ধ্যা ৭টার দিকে উত্তেজিত লোকজন এলাকা ছেড়ে যান।

ওসি আলী হোসেন জানান, দাদীর মৃত্যুর খবর পেয়ে শিশুটি ১০ দিন আগে নওগাঁ গিয়েছিল। গতকালই সে ঢাকায় ফিরে কাজ করতে যায়। আর আজ তার লাশ পাওয়া গেল। ময়নাতদন্তের জন্য শিশুটির লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *