বিশ্বে শক্তিশালী পাসপোর্ট সূচকে শীর্ষে সিঙ্গাপুর, বাংলাদেশ ৯৭তম

এশিয়া প্যাসিফিক

(ওয়াশিংটন, যুক্তরাষ্ট্র) বিশ্বের শক্তিশালী পাসপোর্ট সূচকে যেন এশিয়ার আধিপত্য। আবারও তালিকায় সবার উপরে উঠে এসেছে সিঙ্গাপুর। সিঙ্গাপুরের সঙ্গে তালিকায় শীর্ষস্থানে আছে এশিয়ার আরও দুই দেশ জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়া। তবে এ তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৯৭তম। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংস্থা দ্য হ্যানলি অ্যান্ড পার্টনার্স ১৯৯টি দেশের ওপর পরিচালিত সূচকে ক্ষমতাধর পাসপোর্টের অবস্থান নির্ধারণ করেছে। খবর সিঙ্গাপুরভিত্তিক দৈনিক দ্য স্ট্রেইট টাইমসের।

প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, বিশ্বে ভিসামুক্ত চলাচল স্বাধীনতার ওপর গবেষণা করে প্রতিবছর পাসপোর্ট সূচক প্রকাশ করে দ্য হ্যানলি অ্যান্ড পার্টনার্স। বিশ্বের শক্তিশালী পাসপোর্ট তালিকায় শীর্ষে থাকা এশিয়ার তিন দেশ ভিসা ছাড়াই কিংবা অন অ্যারাইভাল ভিসার মাধ্যমে ১৮৯টি গন্তব্যে যেতে পারবে। বৃহস্পতিবার তালিকাটি প্রকাশ করে হ্যানলি অ্যান্ড পার্টনার্স। গত বছরের তুলনায় ৩ ধাপ এগিয়ে বাংলাদেশের অবস্থান ৯৭তম। ২০১৮ সালের বৈশ্বিক পাসপোর্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে ৫ ধাপ পিছিয়ে ১০০ ধাপে ছিল বাংলাদেশ। ২০১৭ সালে তালিকায় ছিল ৯৫তম অবস্থানে।

গত বছরের মে মাসে শক্তিশালী পাসপোর্ট সূচকে একধাপ পতন হয়ে জাপানের কাছে শীর্ষস্থান হারায় সিঙ্গাপুর। পরে সেই বছরের জুলাইতে ফের শীর্ষস্থানে চলে যায় দেশটি। কিন্তু গত বছরের অক্টোবরে ও চলতি বছরের জানুয়ারিতে পতন ঘটার পর মার্চে আবারও শীর্ষস্থান ফিরে পেল সিঙ্গাপুর।

ইউরোপের দেশ জার্মানি ১৮৮ স্কোর করে শক্তিশালী পাসপোর্ট সূচকের দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে। এর আগে ফ্রান্সের সঙ্গে যৌথভাবে দ্বিতীয় স্থানে ছিল দেশটি। তবে ফান্স একধাপ পিছিয়ে তৃতীয় স্থানে চলে গেছে। ফান্সের সঙ্গে সমান ১৮৭ স্কোর করে তৃতীয় স্থানে আছে ডেনমার্ক, ফিনলান্ড, ইতালি ও সুইডেন। লুক্সেমবার্গ ও স্পেন যৌথভাবে তালিকার চতুর্থ স্থানে উঠে এসেছে। আর শক্তিশালী পাসপোর্ট সূচকে যুক্তরাজ্যের অবস্থান পঞ্চম এবং ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ২০১৫ সালের পর দেশ দুটি কখনোই শীর্ষস্থানে যেতে পারেনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *