বিজেপিকে ভোট নয়, মোদির বিরুদ্ধে প্রচারণায় বলিউডের ১০০ পরিচালক

ভারত

(নয়াদিল্লি, ভারত) এবার নরেন্দ্র মোদির ক্ষমতাসীন বিজেপির বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে বলিউডের পরিচালকরা। গণতন্ত্রণের খোঁজে থাকা সাধারণ মানুষকে বিজেপিকে ভোট না দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন অন্তত ১০০ জন পরিচালক। তাদের স্লোগান- ‘দেশ বাচাও, গণতন্ত্র বাঁচাও’। এ তালিকায় রযেছেন তামিল পরিচালক আসিক আবু, বিশাল ভরদ্বাজ, ভেত্রিমারন, রঞ্জিত, সানাল শশীধরন, বীণা পাল, লীনা মণিমেখলাই ও মধুপালের মতো খ্যাতনামা চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্ব।

জনগণের কাছে তাদের আবেদন, এবারের নির্বাচনে তারা যেন এমন একটি সরকার নির্বাচন করে, যারা দেশের সংবিধানকে শ্রদ্ধা করবে। সমস্ত রকম সেন্সরশিপ থেকে যেন অব্যাহতি পাওয়া যায় আর বাকস্বাধীনতা যাতে লঙ্ঘন না হয়। দেশের সাংস্কৃতিক ও ভৌগলিক অখণ্ডতা বজায় রাখতে এই নির্বাচন অত্যন্ত জরুরি। তাই প্রত্যেকের কাছে তাদের আবেদন, ভোট যেন জনগণ দেন বুঝেশুনে।

মোদির বিজেপির সরকারের বিতর্কিত নানা কর্মকাণ্ড তুলে ধরতে ফেসবুকে ‘আর্টিস্ট ইউনিট ইন্ডিয়া’ নামে পেজ খুলেছেন গোষ্ঠীটি। তারা জানিয়েছেন, ‘ফিল্ম ফ্র্যাটারনিটি ফর ডেমোক্রেসি’ নামে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে তারা আলোচনা করে তবেই এই সিদ্ধান্তে এসেছেন।

তারা বলছেন, গণপিটুনি, দলিত ও মুসলিমদের অধিকার খর্ব করা, সেনার প্রতি ‘আদিখ্যেতা’ এই সবই করছে এই সরকার। এর থেকে উদ্ধার পাওয়ার এটাই শেষ সুযোগ। দেশাত্মবোধকে ট্রাম্প কার্ড করে ভোট ব্যাংকে নিজেদের পাল্লা ভারী করতে চাইছে বিজেপি।

এরপরই সাংবাদিক গৌরী লঙ্কেশের হত্যাকাণ্ডের কথা বলেন তারা। জানান, এই সরকারের রাজত্বকালে বহু সাংবাদিক প্রাণ হারিয়েছেন। কারণ তারা সত্য উদঘাটনের সাহস দেখিয়েছিলেন। এছাড়া এই সরকারের আমলে অর্থনীতিও মুখ থুবড়ে পড়েছে। শুধু কয়েকজন ব্যবসায়ীর পকেট ভারী হয়েছে মাত্র। দেশের কোনো উপকার হয়নি।

বিশাল ভরদ্বাজ বলেছেন, ‘পদ্মাবত’-এর সঙ্গে কী হলো! আগেও যে কথা কাটাকাটি, লড়াই হতো না তা নয়। কিন্তু সেসব হত আদর্শভিত্তিক। আর এখন ব্যক্তিগতভাবে আক্রমণ করা হয়। কর্ণি সেনা বনশালিকে যেভাবে আক্রমণ করেছিল, সেই কথা তুলে ধরেন বিশাল ভরদ্বাজ। নাসিরুদ্দিন শাহ বলেন, এরা নিজেদের হাতে আইন তুলে নিয়েছে। ইতিমধ্যেই দেশ দেখেছে এক পুলিশ অফিসারের থেকে গোহত্যা এদের কাছে বেশি প্রাধান্য পায়। অথচ বলিউডের কেউ সর্বসমক্ষে একথা বলতে এগিয়ে আসেননি।

এ প্রসঙ্গে শশীধরন বলেন, কেউ হয়তো সামনে আসতে চাইছে না। কিন্তু ২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচনের আগে অনেক বলিউড সেলিব্রিটিই বিজেপিকে ভোট না দেয়ার পক্ষে আওয়াজ তুলেছিলেন। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকে বিজেপিকে ভোট না দেয়ার কথা বলছেন বলে দাবি শশীধরনের। ‘সেক্সি দুর্গা’ ছবির এ পরিচালক বলেন, ‘চুপ করে থাকার সময় পেরিয়ে গিয়েছে। এবার মুখ খোলার সময় এসেছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *