বিক্ষোভের মুখে পদত্যাগ করলেন আলজেরিয়ার প্রেসিডেন্ট

আফ্রিকা লিড নিউজ

(আলজিয়ার্স, আলজেরিয়া) ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে পদত্যাগ করলেন আলজেরিয়ার প্রেসিডেন্ট আব্দেল আজিজ বুতেফ্লিকা। মঙ্গলবার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা এপিএস নিউজ-এ প্রকাশিত এক চিঠিতে পদত্যাগের ঘোষণা দেন ৮২ বছর বয়সী বর্ষিয়ান এ নেতা। এর মধ্যদিয়ে তার ২০ বছরের শাসনের অবসান ঘটল। আলজাজিরা জানিয়েছে, অবিলম্বে প্রেসিডেন্টকে দায়িত্ব থেকে সরাতে দেশটির সেনাপ্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল গায়েদ সালাহর আহ্বানের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই পদত্যাগ করলেন তিনি।

আলজেরিয়ায় আগামী ১৮ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হবে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। আব্দেল আজিজ বুতেফ্লিকার বয়স এখন ৮২ বছর। ২০১৩ সালে স্ট্রোকে আক্রান্ত হওয়ার পর থেকে তিনি কার্যত পক্ষাঘাতগ্রস্ত। এরপর থেকে তার জনসমক্ষে কথা বলার ঘটনা খুব বিরল। তবে তারপরও তিনি অবসর গ্রহণে অনিচ্ছা প্রকাশ করে আসছিলেন।

প্রেসিডেন্ট হিসেবে পঞ্চম মেয়াদের জন্য নির্বাচনের ঘোষণা দেয়ার পর বুতেফ্লিকার বিরুদ্ধে বিক্ষোভে নামে মানুষ। গত ১১ মার্চ বুতেফ্লিকা ঘোষণা দেন, তিনি নির্বাচন করবেন না। তবে তাৎক্ষণিকভাবে পদত্যাগে অনিচ্ছা জানিয়ে তিনি বলেন রাজনৈতিক পরিবর্তনবিষয়ক জাতীয় সম্মেলনের জন্য অপেক্ষা করবেন। তবুও বুতেফ্লিকার পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ অব্যাহত থাকে।

মঙ্গলবার সাংবিধানিক পরিষদের প্রেসিডেন্টকে লেখা চিঠিতে বুতেফলিকা বলেন, আমার উদ্দেশ্য হলো আলজেরিয়ার নাগরিকদের হৃদয় প্রশমিত করা যাতে তাদের প্রত্যাশিত একটি সমৃদ্ধ ভবিষ্যত গড়ে তুলতে পারে।

বুতেফ্লিকার ঘোষণার পর রাজধানী আলজেরিসে জনতাকে উল্লাস প্রকাশ করতে দেখা যায়। শহরের পোস্ট অফিসের সামনে অনেকেই পতাকা নাড়িয়ে গান করেন।  সেখানে ২৫ বছর বয়সী কামেল বলেন, এটা দেশের বিজয়। আমরা এখন চাই আমাদের দেশের পুরনো পাহারাদাররা সরে যাক, চাই দুর্নীতিবাজ ব্যবসায়ীদের বিচার হোক। আমরা কেবল একটি রাজনৈতিক লড়াইয়ে জিতেছি, এখনও যুদ্ধে জেতা বাকি।

১৯৯০-এর দশকে আলজেরিয়ার গৃহযুদ্ধের পর সেনাবাহিনীর সমর্থনে ক্ষমতায় আসেন প্রেসিডেন্ট আবদেলআজিজ বোতেফ্লিকা। আলজেরিয়ার বহু বিভক্ত রাজনৈতিক ধারাকে তিনি একত্রিত করেছিলেন বলে মনে করে থাকেন অনেকেই। ২০১১ সালে আরব বসন্তে ওই অঞ্চলের বহু নেতার পতন হলেও টিকে গিয়েছিল বুতেফ্লিকার প্রেসিডেন্ট পদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *