ময়নাতদন্ত করতে গিয়ে লাশের পেটে পাওয়া গেছে ১৫০০ ইয়াবা

বাংলাদেশ

(ঢাকা, বাংলাদেশ) ঢাকার সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে এক লাশের ময়নাতদন্ত করতে গিয়ে পেটের ভেতরে ১৫০০ ইয়াবা ট্যাবলেট পাওয়া গেছে। তবে লাশের কোনো দাবিদার না থাকায় ঘটনায় জড়িতদের পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে বের করতে পারেনি পুলিশ। খবর দ্য ডেইলি স্টার অনলাইনের।

শেরেবাংলা নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জানে আলম মুন্সি বলেন, যে নারীর লাশের পেটে ইয়াবা পাওয়া গেছে তাকে সোমবার জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করার পর তার সঙ্গে থাকা লোকজন এম্বুলেন্স নিয়ে আসার নাম করে পালিয়ে যান।

পরে ময়নাতদন্ত করতে লাশ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসে পুলিশ। সেখানেই তার পেটে ইয়াবার অস্তিত্ব পাওয়া যায়। ওসি বলেন, তাদের সন্দেহ পাকস্থলিতে ইয়াবা পরিবহনের চেষ্টার কারণেই ওই নারীর মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে। হাসপাতালের মর্গ সূত্রগুলো জানায়, ময়নাতদন্ত করার সময় চিকিৎসকরা মৃতদেহের পেট থেকে ৫৭টি প্যাকেটে ১৫০০ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *