কাশ্মিরে বন্দুকধারীর গুলিতে বিজেপি প্রার্থী নিহত, মোদির শোক

ভারত

(কাশ্মীর, ভারত) ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে অজ্ঞাত বন্দুকধারীর গুলিতে বিজেপির এক নেতা নিহত হয়েছেন। শনিবার রাতে অনন্তনাগের বিজেপির জেলা সহসভাপতি গুল মুহাম্মদ মীরের (৬০) বাসায় ঢুকে এলোপাথাড়ি গুলিবর্ষণ করে অজ্ঞাত বন্দুকধারীরা। লোকসভার পঞ্চম ধাপের নির্বাচনের আগে এ ঘটনা উপত্যকায় নতুন করে উত্তেজনা ছড়াচ্ছে। খবর এনডিটিভির।

দলের নেতার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। নিন্দা জানিয়েছেন কাশ্মীর মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি। বিজেপির এ নেতা দলীয় টিকিটে ২০০৮ ও ২০১৪ সালে দরু থেকে বিধানসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে পরাজিত হয়েছিলেন।

খবরে বলা হয়, ঘটনার দিন রাত ১০ টার দিকে নিজ বাড়িতে বুকে ও পেটে গুলিবিদ্ধ হন গুল মুহাম্মদ। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন। হাসপাতালের এক চিকিৎসক বলেন, গুল মুহাম্মাদ মীর বুকে ৩ টা ও পেটে ২ টা গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আনা হলে তাঁকে মৃত ঘোষণা করা হয়। পুলিশের পক্ষ থেকে একটি মামলা রুজু করে ওই ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।

গুল মুহাম্মদ মীরের হত্যার ঘটনায় আজ (রোববার) প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। ওই ঘটনায় রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও পিডিপি নেত্রী মেহবুবা মুফতি ও ন্যাশনাল কনফারেন্স নেতা ওমর আব্দুল্লাহ তীব্র নিন্দা করে নিহতের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, জম্মু ও কাশ্মিরে দলকে শক্তিশালী করার ক্ষেত্রে তাঁর অবদান সর্বদা মনে থাকবে। আমাদের দেশে এ ধরনের সহিংসতার জন্য কোনো জায়গা নেই।

ওমর আব্দুল্লাহ বলেছেন, আমি সহিংস ওই ঘৃণ্য ঘটনার নিন্দা জানাচ্ছি। তার মাগফিরাতের জন্য দোয়া করছি। আল্লাহ তাঁকে জান্নাত দান করুন। মেহবুবা মুফতি ওই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে তাঁর মাগফিরাত কামনা করেছেন। জম্মু-কাশ্মির প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি গুলাম মুহাম্মদ মীরসহ অন্য নেতারাও ওই হত্যার ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *