ব্যাগের ভেতর গরুর গোশত বহন করায় মুলসিম বাবা-ছেলেকে বেধড়ক পেটাল বিএসএফ

ভারত

ভারতে হিন্দুত্ববাদী উগ্রপন্থী সন্ত্রাসীদের হাতে গরু বিক্রি বা জবাইয়ের কারণে অর্ধশতাধিক মুসলিম হত্যার শিকার হলেও কোনো নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যের বিরুদ্ধে গরু বিক্রি বা জবাইয়ের কারণে কোন মুসলমানকে নির্যাতনের ঘটনা আগে ঘটেনি।সদ্য বিয়ে করেছেন গিয়াসউদ্দিনের ছেলে আনোয়ারুল।

ছেলের শ্বশুর বাড়ি থেকে অতিথি আসবেন। তাই বাবা-ছেলে মিলে সওদা করতে বাজারে গিয়েছিলেন।

ফেরার পথে তাদের দেখা হয় ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) সঙ্গে। ব্যাগের ভেতর গরুর গোশত আছে সন্দেহে জওয়ানরা তাদের থামান। এরপর তল্লাশি করে সত্যি সত্যি গরুর গোশত পাওয়া গেল তাদের ব্যাগে।

এরপর বাবা-ছেলেকে নিয়ে যাওয়া হয় বিএসএফ ক্যাম্পে। ব্যাপক মারধরের পর ছাড়া পান তারা। গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালেও ভর্তি হতে হয়েছে ভুক্তভোগীদের।

গত রোববার ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে। এ খবর দিয়েছে দেশটির বিকল্প ধারার সংবাদমাধ্যম ক্যারাভান।

পত্রিকাটি জানিয়েছে, ঘটনায় দায়ী বিএসএফ জওয়ানরা হলেন ব্যাটেলিয়ন ১৭১ ক্যাম্পের সদস্য।

ক্যারাভান জানিয়েছে, স্থানীয় গোয়ালপুকুর থানায় ভুক্তভোগীরা অভিযোগ দায়ের করেছেন।  এ ঘটনা শিলিগুড়ির স্থানীয় এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভ ছড়িয়েছে। বুধবার স্থানীয় বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা এর প্রতিবাদে বিক্ষোভ করার কথা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *