ভারতে নতুন ‘প্রদেশ’ প্রতিষ্ঠার দাবি আইএসের

ভারত

(কাশ্মীর, ভারত) ভারতে একটি ‘প্রদেশ’ প্রতিষ্ঠা করেছে বলে দাবি করেছে জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস। কাশ্মীর অঞ্চলে ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের এক সংঘর্ষের পর গোষ্ঠীটির পক্ষ থেকে এ দাবি করা হয়েছে। ওই সংঘর্ষে নিহত এক বিচ্ছিন্নতাবাদীর সঙ্গে আইএসের সম্পর্ক ছিল বলে অভিযোগ ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর। শুক্রবার রাতে আইএসের সংবাদ মাধ্যম আমাক এক বিবৃতিতে নতুন ওই প্রদেশের ঘোষণা দেয়।

রয়টার্স জানিয়েছে, নতুন এ প্রদেশকে ‘বিলায়াহ অব হিন্দ’ বলে অভিহিত করেছে তারা। ওই বিবৃতিতে কাশ্মীরের শোপিয়ান জেলার আমশিপোরা এলাকায় ভারতীয় সেনাবাহিনীর ওপর আইএসের হামলায় হতাহতের ঘটনা ঘটেছে বলেও দাবি করা হয়েছে। ইরাক ও সিরিয়ায় পতনের পর মধ্যপ্রাচ্যের বাইরে আইএসের আস্তানা গাড়ার প্রথম কোনো ঘোষণা।

ভারতীয় পুলিশের এক বিবৃতিতেও দাবি করা হয়, শুক্রবার রাতে শোপিয়ানে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের সঙ্গে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে এবং তাতে ইসফাক আহমেদ সোফি নামের এক জঙ্গি নিহত হয়েছে। আইএস এক সময় ইরাক ও সিরিয়ার হাজার হাজার মাইল এলাকায় নিজেদের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করেছিল। কিন্তু চলতি বছরের এপ্রিলে তাদের নিজস্ব ধরনের ‘খিলাফত’ থেকে তাদের উচ্ছেদ করা হয়। এখন ভারতে নতুন প্রদেশ প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দিয়ে তারা সেখানে তাদের অবস্থান মজবুত করতে চাইছে বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষকরা।

আইএস এখন আত্মঘাতী হামলা ও আকস্মিক আক্রমণের ওপর জোর দিয়েছে। সম্প্রতি শ্রীলঙ্কায় খ্রিস্টানদের ইস্টার সানডের পরবের দিন চালানো আত্মঘাতী হামলার দায়ও স্বীকার করেছে তারা। ওই হামলায় ২৫৩ জন নিহত হয়। ইসলামিক উগ্রপন্থিদের অনুসরণ করা মার্কিন কোম্পানি এসআইটিই ইন্টেলিজেন্স গ্রুপের পরিচালিক ইসরায়েলি নাগরিক রিটা কার্তজ বলেছেন, ‘ওই অঞ্চলে (কাশ্মীরে) তাদের কোনো নিয়ন্ত্রণই নেই, সেখানে একটি ‘প্রদেশ’ প্রতিষ্ঠা করা অবাস্তব, কিন্তু এ ঘোষণাকে অবহেলা করা উচিত হবে না।’

শনিবার ভারতীয় সামরিক কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সোফি আইএসের আনুগত্য স্বীকার করার আগে এক দশকেরও বেশি সময় ধরে কাশ্মীরের বিভিন্ন বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠীর সঙ্গে জড়িত ছিলেন। রয়টার্স জানিয়েছে, আইএসের প্রতি সহানুভ‚তিশীল শ্রীনগরভিত্তিক একটি সাময়িকীকে দেওয়া সোফির সাক্ষাৎকারেও একই ধরনের ভাষ্য পাওয়া গেছে। ভারতীয় পুলিশ ও সামরিক সূত্রগুলো রয়টার্সকে জানিয়েছে, শোপিয়ান অঞ্চলে ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর বেশ কয়েকটি গ্রেনেড হামলার ঘটনায় সোফি সন্দেহভাজন ছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *