পাকিস্তানকে ৬ বিলিয়ন ডলার ঋণ সহায়তা অনুমোদন আইএমএফের

পাকিস্তান

(ইসলামাবাদ, পাকিস্তান) একটি বেল-আউট প্যাকেজের অধীনে আগামী তিন বছরের জন্য পাকিস্তানকে ৬ বিলিয়ন ডলার (৬০০ কোটি ডলার) সহায়তা দিচ্ছে আন্তর্জাতিক আর্থিক তহবিল (আইএমএফ)। রোববার এ বিষয়ে আইএমএফের সঙ্গে একটি চুক্তি হয়েছে পাকিস্তানের। পাকিস্তানের অর্থমন্ত্রী আবদুল হাফিজ শেখ জানিয়েছেন, আগামী ৩ বছরে পাকিস্তানকে বিভিন্ন ধাপে ৬শ কোটি মার্কিন ডলার দেবে আইএমএফ।

এ পর্যন্ত আইএমএফের কাছ থেকে ২২ বার আর্থিক সহায়তা পেল পাকিস্তান। জিনিসপত্রের দাম প্রতিনিয়ত বাড়ছে। মুদ্রাস্ফীতি আকাশছোঁয়া। ঋণের দায়ে জর্জরিত পাকিস্তানের অর্থনীতি। এমন অবস্থায় আইএমএফের কাছ থেকে সহায়তা নেয়া ছাড়া উপায় নেই। সে কারণে দীর্ঘদিন ধরেই আর্থিক সহায়তা পাওয়ার চেষ্টা চলছিল।

এর আগে আইএমএফের কিছু কঠোর শর্তের বিষয়ে অভিযোগ করেছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। আইএমএফের প্রত্যাশিত শর্তের বিরোধী ছিল পাক সরকার। ফলে এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন হতে কিছুটা সময় লেগেছে। তবে দু’পক্ষের মধ্যে একাধিক বৈঠকের পর অবশেষে রোববার ইসলামাবাদের সঙ্গে আইএমএফের ৬০০ কোটি মার্কিন ডলারের চুক্তি হয়েছে।

অর্থনৈতিক উন্নয়ন হচ্ছে না এমন সমালোচনার মুখে দেশটির অর্থমন্ত্রীসহ রাষ্ট্রীয় ব্যাংকের প্রধান এবং ফেডারেল ব্যুরো অব রেভিনিউয়ের প্রধানকে সরিয়ে অর্থনৈতিক সেক্টরের পুরো টিমেই পরিবর্তন আনেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

আইএমএফের প্রতিনিধিদলের প্রধান রেমিরেজ রিগোর জানিয়েছেন, পাকিস্তানের অর্থনীতিকে চাঙ্গা করা ও ভারসাম্যের আর্থিক বৃদ্ধিই এই চুক্তির মূল উদ্দেশ্য। পাকিস্তানে ব্যবসার পরিবেশ তৈরি করা, সরকারি কাজে স্বচ্ছতা আনা, সামাজিক খাতে ব্যয় বাড়ানোর মতো কার্যকলাপগুলো সুনিশ্চিত করা দরকার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *