ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহী গোষ্ঠী

সৌদি-আমিরাতের ৩০০ স্থাপনায় ড্রোন হামলার হুমকি হুতিদের

মধ্যপ্রাচ্য

(সানা, ইয়েমেন) ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহী গোষ্ঠী বলেছে, গত সপ্তাহে পাম্পিং স্টেশনে হামলার মাধ্যমে সৌদি আরবে তাদের সামরিক অভিযান শুরু। আরও তিন শতাধিক গুরুত্বপূর্ণ সামরিক স্থাপনায় হামলা চালানো হবে বলেও হুমকি দিয়েছে তারা। সামরিক সূত্রের বরাতে হুতি নিয়ন্ত্রিত এসএবিএ সংবাদ সংস্থা এ তথ্য জানিয়েছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের ইয়েমেনের ঘাঁটিসহ গুরুত্বপূর্ণ সামরিক প্রধান কার্যালয় ও স্থাপনাকে হামলার নিশানা করা হবে বলে হুতিরা জানিয়েছেন।

এদিকে ইরাকের রাজধানী বাগদাদের অতি সুরক্ষিত গ্রিন জোনে রোববার একটি রকেট হামলার ঘটনা ঘটেছে। যেখানে হামলাটি হয়েছে, সেখানে সরকারি ভবন ও মার্কিন মিশনসহ বিভিন্ন দেশের দূতাবাস রয়েছে। ইরাকি সামরিক বাহিনীর বরাতে আরব নিউজ ও এএফপি এ তথ্য জানিয়েছে।

এমন এক সময়ই এই রকেট নিক্ষেপ করা হয়েছে, যার কয়েকদিন আগে ইরানি হুমকির কথা উল্লেখ করে ইরাক থেকে মার্কিন কর্মকর্তাদের সরিয়ে নেয়া হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, রোববার রাতে মধ্য বাগদাদ থেকে একটি বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। বাগদাদভিত্তিক দুটি কূটনৈতিক সূত্রও বিস্ফোরণ হওয়ার কথা জানিয়েছে।

সামরিক বাহিনীর সংক্ষিপ্ত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, গ্রিন জোনের মাঝে একটি ক্যাচুশা রকেট আঘাত হেনেছে। তবে এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। পরবর্তীতে বিস্তারিত জানানো হবে বলে বিবৃতিতে বলা হয়। ক্যাচুসা রকেট লাঞ্চার খুবই সস্তা ও সুলভ। প্রচলিত বড় কামানের চেয়ে এটি দ্রুত গতিতে লক্ষ্যবস্তুতে বিস্ফোরক নিক্ষেপ করতে পারে। কিন্তু হামলা খুব বেশি একটা নির্ভুল হয় না।

চলতি সপ্তাহে রাজধানী বাগদাদের মার্কিন দূতাবাস ও ইরবিল কনস্যুলেট থেকে অগুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তাদের সরিয়ে নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। একটি নিরাপত্তা সূত্র আরব নিউজকে জানিয়েছে, আমরা মনে করি না, হামলার নিশানা ছিল কোনো দূতাবাস। বহুদূর থেকে এটি নিক্ষেপ করা হয়েছে।

সূত্রটি বলছে, এটি একটি ক্যাচুসা রকেট। পূর্ব বাগদাদ থেকে এই হামলা চালানো হয়েছে। কাজেই এটার নির্দিষ্ট নিশানায় আঘাত হানার কোনো সুযোগ নেই।

মার্কিন বাহিনী ও স্থাপনায় ইরানের কাছ থেকে আসা বাড়তি হুমকির মোকাবেলায় মধ্যপ্রাচ্যে অতিরিক্ত সামরিক শক্তি মোতায়েন করেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। চলতি মাসের শুরুতে মধ্যপ্রাচ্যে বিমানবাহী রণতরী, বি-৫২ বোমারু বিমান ও প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

তবে এ রকেট হামলার নেপথ্যে কারা তা এখন পর্যন্ত জানা যায়নি। পুলিশ সূত্রের বরাতে এএফপি জানিয়েছে, দক্ষিণ বাগদাদের একটি খোলা জায়গা থেকে রকেটটি ছোড়া হয়েছে বলে প্রাথমিক আভাস পাওয়া গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *