এক মাসেরও কম সময়ে ১৩৫ কোটি ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছে প্রবাসীরা

বাংলাদেশ

(ঢাকা, বাংলাদেশ) ঈদ সামনে রেখে প্রবাসীরা দেশে বেশি টাকা পাঠাচ্ছেন। চলতি মে মাসের ২৪ দিনেই ১৩৫ কোটি (১.৩৫ বিলিয়ন) ডলার দেশে পাঠিয়েছেন তারা। বাংলাদেশ ব্যাংক রেমিটেন্স নিয়ে সবশেষ যে প্রতিবেদন দিয়েছে, তা পর্যালোচনা করে এ তথ্য উঠে এসেছে। বিশ্লেষকেরা বলছেন, প্রতি বছর ঈদের আগে রেমিটেন্সে প্রবাহ ভালো থাকে। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। অন্যান্য মাসের তুলনায় এ মাসে সাধারণত বেশি টাকা পাঠান প্রবাসীরা। খবর আরটিভি অনলাইনের।

বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম বলেন,রেমিটেন্স প্রবাহ এমনিতেই ভালো ছিল। রোজা এবং ঈদকে সামনে রেখে প্রয়োজনীয় কেনাকাটা করতে পরিবার-পরিজনের কাছে বেশি বেশি টাকা পাঠাচ্ছেন। সে কারণেই রেমিটেন্স বাড়ছে। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী  ৫ বা ৬ জুন ঈদ অনুষ্ঠিত হবে।সে হিসেবে মাসের বাকি সপ্তাহে রেমিটেন্স আরও বাড়তে পারে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের এই নির্বাহী পরিচলকের আশা,অর্থবছর শেষে এবার রেমিটেন্সের পরিমাণ ১৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ছাড়িয়ে যাবে। গত বছর যা ছিল ১৫ বিলিয়নের কাছাকাছি।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদন অনুযায়ী, চলতি মে মাসের ২৪ দিনে (১ মে থেকে ২৪ মে পর্যন্ত) ১৩৫ কোটি ডলার রেমিটেন্স এসেছে। এরমধ্যে ১ থেকে ৩ মে এসেছে ১১ কোটি ৬৮ লাখ ডলার। আর ৪ থেকে ১০ মে এসেছে ৪৯ কোটি ৫৩ লাখ ডলার। ১১ থেকে ১৭ মে এসেছে ৩৮ কোটি ৯১ লাখ ডলার এবং ১৮ থেকে ২৪ মে পর্যন্ত ৩৪ কোটি ৯৩ লাখ ডলার রেমিটেন্স এসেছে।

প্রতিবেদনে আরও দেখা যায়, মে মাসের প্রথম ২৪ কার্যদিবসে রাষ্ট্রায়ত্ত ৬ ব্যাংকের মাধ্যমে রেমিটেন্স এসেছে ৩০ কোটি ৭০ লাখ ডলার, বিশেষায়িত দুই ব্যাংকের মাধ্যমে ১ কোটি ৭৪ লাখ ডলার, বেসরকারি ৪০টি ব্যাংকের মাধ্যমে ১০১ কোটি ৮১ লাখ ডলার এবং বিদেশি ৯ ব্যাংকের মাধ্যমে প্রায় ৮০ লাখ ডলার রেমিটেন্স এসেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *