৩০ মে নরেন্দ্র মোদির শপথে যাচ্ছেন মমতা

ভারত

(নয়াদিল্লি, ভারত) ৩০ মে নরেন্দ্র মোদির শপথ অনুষ্ঠান ৷ প্রধানমন্ত্রীর শপথ অনুষ্ঠানে যাবেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল কংগ্রেসের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ সৌজন্যতার খাতিরেই মোদির শপথে যোগ দিতে যাচ্ছেন মমতা। ৩০ মে অর্থাৎ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাতটায় প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ নেবেন নরেন্দ্র মোদি ৷ খবর নিউজ১৮ ও দ্য ওয়ালের।

লোকসভা নির্বাচনের প্রচারণার সময় বারবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে কথার যুদ্ধে জড়িয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই যুদ্ধ ভারতের ইতিহাসে রাজনৈতিক শালীনতা ছাড়িয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। তবে যুদ্ধের দামামা আপাতত স্থগিত রেখে বিপুল ব্যবধানে দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়া মোদির শপথ অনুষ্ঠানে উপস্থিত হবেন মমতা।

মঙ্গলবার পশ্চিমবঙ্গের সচিবালয় থেকে বের হওয়ার সময় সাংবাদিকদের মমতা বলেন, ‘ওরা আজ চিঠি পাঠিয়েছে। আমি অন্য কয়েক জন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গেও কথা বলেছি। এটা যেহেতু একটি সাংবিধানিক অনুষ্ঠান তাই আমার ঠিক করেছি যে যাওয়া উচিত।’ মমতা আরও বলেন, ‘শেষ মুহূর্তে জানতে পেরেছি। মাঝে শুধু কালকের দিনটাই রয়েছে। পরশু সন্ধ্যায় শপথ গ্রহণ। ফলে যেতে হলে কালই যেতে হবে। আমরা চেষ্টা করছি শপথ অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার।’

বিশ্লেষকদের মতে, মমতা যে অবস্থান নিয়েছেন তা খুবই ইতিবাচক। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি যেমন সমন্বয়মূলক যুক্তরাষ্ট্রীয় ব্যবস্থার কথা বলেন। তেমনই মমতাও যুক্তরাষ্ট্রীয় ব্যবস্থাকে মজবুত করার পক্ষে। রাজনৈতিক বিরোধিতা যাতে সেই সমন্বয়ের পথে বাধা না হয় সে কথা দু’জনেই বলেন। মমতার এই অবস্থানকে স্বাগত জানিয়েছে বিজেপি-ও।

এদিকে মঙ্গলবারই তৃণমূল কংগ্রেসের ২ বিধায়ক ও অর্ধশতাধিক পৌর কাউন্সিলর দিল্লিতে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির কাছে আসন হারানোর পর মমতার জন্য এটাকে বড় ধরনের ধাক্কা হিসেবে মনে করা হচ্ছে।সূত্র: দ্য ওয়াল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *