এরশাদের মৃত্যু নিয়ে গুঞ্জন, স্ত্রী-পুত্র-নেতাকর্মীরা হাসপাতালে

বাংলাদেশ লিড নিউজ

(ঢাকা, বাংলাদেশ) রোববার রাত সাড়ে ৯টার কিছু পর থেকে শুরু হয় গুঞ্জন। ফোন থেকে ফোনে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সারাদেশেই ছড়িয়ে পড়ে জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা  হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ মারা গেছেন। কেউ কেউ ফেসবুকে এরশাদের মৃত্যুর খবর প্রচার করেন, পরে আবার সে স্ট্যাটাস ফিরিয়ে নেন। একটি টিভি চ্যানেলে সারারাত ঘনিষ্ঠজনের বরাত দিয়ে এরশাদের মৃত্যুর খবর প্রচার হয়েছে। ভোরবেলা চ্যানেলটি সে খবরটি প্রত্যাহার করে।

এমন গুজব-গুঞ্জনের মধ্যেই জাতীয় পার্টির শীর্ষনেতারা বলেছেন, দলের চেয়ারম্যানের মৃত্যুর সংবাদটি নিছকই গুজব। সোমবার সকালে দেশের একাধিক জাতীয় সংবাদ মাধ্যম এ খবর দিযেছ। এরশাদের আত্মীয় এবং জাপার  প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন আহমেদ  বাবলু রাত পৌনে এগারোটায়  বলেন, মৃত্যুর খবরটি গুজব।  তবে তার শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত,  ভালো নেই। জাপার সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুল ইসলাম মিলন সিএমএইচ থেকে জানান, এরশাদের মৃত্যুর খবরটি গুজব। তবে তার অবস্থা আশংকাজনক।

রাতেই এরশাদের শারীরিক অবস্থার অবনতির খবর পেয়ে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) উপস্থিত হন পরিবারের সদস্য এবং জাপা’র নেতাকর্মীরা। এরশাদের স্ত্রী রওশন এরশাদ, দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জি এম কাদের, সাবেক মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার, কাজী ফিরোজ রশীদ, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির সভাপতি  আনোয়ার হোসেন মঞ্জু, বিকল্পধারার মহাসচিব মেজর (অব.) মান্নানও দেখতে যান এরশাদকে।

এরশাদের ডেপুটি প্রেস সচিব খন্দকার দেলোয়ার জালালী এক  সংবাদ  বিজ্ঞপ্তিতে জানান, এরশাদের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত আছে। তিনি এখনও অক্সিজেন সার্পোটে আছেন। সবাই তার জন্য দোয়া করবেন।

জাতীয় পার্টি (জাপা) চেয়ারম্যান এরশাদ বেশ কিছুদিন ধরেই অসুস্থ রয়েছেন। কয়েকদিন আগে তিনি সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ভর্তি হন। এরশাদের শারীরিক অবস্থা অবনতি হয়েছে, তিনি লাইফ সার্পোটে আছেন এমন খবর রোববার সকাল থেকেই প্রচার করে গণমাধ্যমগুলো। সন্ধ্যায় জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জিএম কাদের সংবাদ সম্মেলন করে বলেন, এরশাদের অবস্থা অবনতি হয়েছে। তিনি লাইফ সার্পোটে রয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *