এরশাদের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত: ভাই জিএম কাদের

বাংলাদেশ

ঢাকা, বাংলাদেশ- সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে বলে জানিয়েছেন তার ভাই ও দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জিএম কাদের। সোমবার (১ জুলাই) জিএম কাদের বলেন, ‘এরশাদ-এর শারীরিক অবস্থা কিছুটা অবনতি হলে তাকে অক্সিজেন সাপোর্ট দেয়া হয়।’ তিনি বলেন, এরশাদের ফুসফুসে পানি জমার কারণে তার কিছুটা শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল। খবর ডেইলি স্টার অনলাইন।

২৬ জুন এরশাদের শারীরিক অবস্থার হঠাৎ অবনতি ঘটে। ওইদিনই তাকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়। সেখানে তার নানা অঙ্গ-প্রত্যঙ্গে কিছু সংক্রমণের চিকিৎসা চলছে। তার ওষুধ পরিবর্তন করা হয়েছে।যে কারণেই তাকে অক্সিজেন সাপোর্ট দেওয়া হয়েছে। জিএম কাদের বলেন, ‘এরশাদের ফুসফুস সংক্রমণ কমেছে কিন্তু কিডনি সংক্রমণ বেড়েছে। তার সামগ্রিক অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে।’

এদিকে দলের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে গতকাল জানানো হয়, গত ২৭ জুন সকালে এরশাদ অসুস্থবোধ করলে তাকে সিএমএইচে ভর্তি করা হয়। সেখানকার চিকিৎসকরা অত্যন্ত আন্তরিকতার সাথে এরশাদের চিকিৎসা দিচ্ছেন। চিকিৎসকরা মনে করছেন, এরশাদের চিকিৎসা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালেই সম্ভব। তবে, চিকিৎসকরা পরামর্শ দিলে তাকে উন্নত চিকিৎসা দেয়ার জন্য পৃথিবীর যেকোনো দেশেই পাঠানোর প্রস্তুতি রয়েছে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়।

ঢাকা, বাংলাদেশ- সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে বলে জানিয়েছেন তার ভাই ও দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জিএম কাদের। সোমবার (১ জুলাই) জিএম কাদের বলেন, ‘এরশাদ-এর শারীরিক অবস্থা কিছুটা অবনতি হলে তাকে অক্সিজেন সাপোর্ট দেয়া হয়।’ তার ফুসফুসে পানি জমার কারণে তার কিছুটা শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল বলও জানান তিনি। খবর ডেইলি স্টার অনলাইন।

জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয়ে সাংবাদিকদের কাদের বলেন, শ্বাস-প্রশ্বাসে সমস্যার কারণে তাকে অক্সিজেন সাপোর্ট দেওয়া হচ্ছে। এর আগে গত ২৯ জুন জাপার ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জিএম কাদের জানান, গত তিন দিনে তার ভাইয়ের শারীরিক অবস্থা ৫০ ভাগ উন্নত হয়েছে।

রক্তে হিমোগ্লোবিন স্বল্পতা, লিভারে সমস্যা, রক্তে সংক্রমণসহ নানা বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছেন ৮৯ বছর বয়সী এ রাজনৈতিক নেতা। গত নভেম্বরের মাঝামাঝি সময়ের পর থেকে রাজনৈতিক কর্মসূচিতে দেখা যায়নি তাকে। এরশাদ গত আট মাসে বিভিন্ন সময়ে সিএমএইচ এবং দেশের বাইরে চিকিৎসা গ্রহণ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *