ইরান আগুন নিয়ে খেলছে: ট্রাম্প

আমেরিকা

ওয়াশিংটন, যুক্তরাষ্ট্র- ইরান আগুন নিয়ে খেলছে বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ইউরেনিয়ামের মজুত সীমা অতিক্রম করার ঘোষণার প্রতিক্রিয়ায় এক সাক্ষাৎকারে এ মন্তব্য করেন তিনি। তিনি বলেন, ‘ইরানের প্রতি কোনো বার্তা নেই। তারা জানে তারা কী করছে। তারা জানে তারা কী নিয়ে খেলছে। আমি মনে করি, তারা আগুন নিয়ে খেলছে। সুতরাং যাই ঘটুক না কেন, ইরানের প্রতি কোনো বার্তা নয়।’

এর আগে ইানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ বলেন, তেহরান তার পরিকল্পনা মাফিক ৩০০ কেজির ইউরেনিয়াম মজুত সীমা ছাড়িয়ে গেছে। ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এ ঘোষণার পর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে চুক্তির অন্যতম পক্ষ ব্রিটেন। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেরেমি হান্ট বলেছেন, ইউরেনিয়াম মজুত সীমা লঙ্ঘনে ইরানের ঘোষণায় ‘গভীরভাবে উদ্বিগ্ন’। তার দেশ ইরান পরমাণু চুক্তিতে ‘প্রতিশ্র“তিবদ্ধ’ বলেও দাবি করেন তিনি। সোমবার এক টুইটার বার্তায় তিনি বলেন, ‘পরমাণু চুক্তি কার্যকর রাখতে এবং আঞ্চলিক উত্তেজনা প্রশমনে প্রয়োজনীয় সব ক‚টনৈতিক উদ্যোগ নেবে লন্ডন।’

২০১৫ সালে সই হওয়া পরমাণু সমঝোতা অনুযায়ী ইরান ৩০০ কেজি পর্যন্ত সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম মজুদ করতে পারতো। তবে ওই সমঝোতার ২৬ ও ৩৬ নম্বর ধারায় বলা হয়েছে, অপর পক্ষ এ সমঝোতা বাস্তবায়নে ব্যর্থ হলে তেহরান এর কোনও কোনও ধারার বাস্তবায়ন স্থগিত রাখতে পারবে। সে অনুযায়ী ইরান এ পদক্ষেপ নিল।

সোমবার নাতাঞ্জ শহরে এক অনুষ্ঠানের অবকাশে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম মজুদের সীমা বাড়ানোর কথা জানান ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। ইসনা বার্তা সংস্থার এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “আমার জানা মতে ইরান সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম মজুদের ৩০০ কেজির সীমা ছাড়িয়ে গেছে। আগেই এ পরিকল্পনার কথা ঘোষণা করেছিলাম। আমরা যে ঘোষণা দিয়েছি তা খুবই পরিষ্কার এবং আমরা মনে করি পরমাণু সমঝোতা অনুসারে এটি আমদের অধিকার।”

গত ১৭ জুন ইরানের আণবিক শক্তি সংস্থার মুখপাত্র বেহরুজ কামালভান্দি জানান, ২৭ জুন থেকে তার দেশ পরমাণু সমঝোতা অনুযায়ী সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম মুজদের সীমা মানবে না। রয়টার্স জানিয়েছে, ইরানের সমৃদ্ধ ইউরেনিয়ামের মজুদ সীমা অতিক্রম করার বিষয়টি যাচাই করছে আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা (আইএইএ)।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *