লিবিয়াকে ধ্বংস করেছে ন্যাটো: পুতিন

ইউরোপ

রোম, ইতালি- লিবিয়ার বর্তমান ভয়াবহ পরিস্থিতির জন্য মার্কিন নেতৃত্বাধীন ন্যাটো সামরিক জোটকে দায়ী করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। তিনি বলেছেন, এই জোট লিবিয়াকে ধ্বংস করেছে। ইতালি সফরে শুক্রবার দেশটির প্রধানমন্ত্রী গিউসেপ্পে কন্তের সঙ্গে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে পুতিন এই মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, সিরিয়া থেকে উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর সদস্যরা লিবিয়ায় যাচ্ছে এবং এতে পারিস্থিতির আরও অবনতি ঘটবে।

পশ্চিমা দেশগুলার সঙ্গে রাশিয়ার উত্তেজনার সম্পর্কের প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার পুতিন ইতালি সফরে যান। সেদিন ভ্যাটিকান সিটিতে ক্যাথলিক খ্রিস্টান ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিসের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন তিনি। শুক্রবার ইতালির প্রধানমন্ত্রী গিউসেপ্পের সঙ্গে বৈঠক করেন। এরপর যৌথ সংবাদ করেন এ দুই নেতা। রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, লিবিয়ায় কীভাবে গোলযোগ সৃষ্টি হয়েছে তা স্মরণ করা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

পুতিন সরাসরি অভিযোগ করে বলেন, আপনারা কী স্মরণ করতে পারেন, কে লিবিয়াকে ধ্বংস করেছে। এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিল ন্যাটো। ইউরোপীয় বিমান থেকে লিবিয়ায় বোমাবর্ষণ করা হয়েছিল।

২০১১ সালে ন্যাটো বাহিনীর অভিযানের মুখে দীর্ঘদিনের শাসক মুয়াম্মার গাদ্দাফি ক্ষমতা থেকে উৎখাত ও নিহত হন। এরপর থেকেই দেশটিতে গোলযোগ চলছে। চলমান এ অবস্থা নিয়ে পুতিন বলেন, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব লিবিয়ায় রক্তপাত বন্ধ করা জরুরি। পাশাপাশি দ্রুত সংলাপ শুরু করা দরকার।

২০১৪ সাল থেকে দ্বিতীয় দফায় লিবিয়ায় গৃহযুদ্ধ শুরু হয়। ওই সময় জাতিসংঘ সমর্থিত সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই শুরু করে বিভিন্ন মিলিশিয়া গ্রুপ। এরপর থেকেই দেশটির পরিস্থিতি আবারও খারাপ হতে শুরু করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *