কিউবার রেল যোগাযোগ আধুনিকায়নে কাজ করছে চীন ও রাশিয়া

আমেরিকা

হাভানা, কিউবা- রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা আধুনিকায়নে বড় পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে ল্যাটিন আমেরিকার দেশ কিউবা। এতে সাহায্য করছে বন্ধুরাষ্ট্র রাশিয়া ও চীন। গত চার দশকের মধ্যে প্রথমবারের জন্য একটি যাত্রীবাহী ট্রেন দেশটির রেল যোগাযোগ ব্যবস্থায় যুক্ত হয়েছে। শনিবার প্রথমবারের মতো ট্রেনটি রাজধানী হাভানা থেকে দ্বীপরাষ্ট্রটির অপর প্রান্তে ছুটে যায়।

রয়টার্স জানিয়েছে, কিউবার রেল যোগাযোগ উন্নয়নের জন্য চীন প্রায় ৮০টি বগি পাঠিয়েছে। কিউবার সরকার রেলের রাস্তা ও যন্ত্রাংশের আধুনিকায়ন চায়। এ লক্ষ্যে দেশটিতে আরো বগি পাঠাবে চীন। এ ছাড়া রাশিয়ার সহায়তায় নতুন নতুন রেললাইন স্থাপন করতে চলেছে দেশটি।

কিউবার জাতীয় রেলওয়ে ব্যবস্থার প্রধান এডুয়ার্ডো হার্নান্দেজ বলেন, এটি হচ্ছে কিউবার রেলওয়ের আধুনিকায়নের শুরু। ১৯৭০ সালের পর থেকে কিউবা নতুন কোনো বগি সার্ভিসে আনে নি। তবে দেশটি বেশ কিছু সেকেন্ড হ্যান্ড বগি আমদানি করেছে।

কিউবার রেলওয়ে সিস্টেম পৃথিবীর অন্যতম পুরনো। ১৮৩০ সালেই কিউবাতে রেল যোগাযোগ স্থাপিত হয়। কিন্তু রক্ষণাবেক্ষণ ও মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় এই জনপ্রিয় যোগাযোগ ব্যবস্থাটি ধ্বংস হয়ে যেতে শুরু করে। একসময় এটি কিউবার সব থেকে সস্তা সিস্টেম ছিল। কিন্তু ক্রমাগত এটি জনপ্রিয়তা হারাতে শুরু করে। এর অন্যতম প্রধান কারণ হিসেবে দায়ী করা হয় কম গতিকে।

রাজধানী হাভানা থেকে সব থেকে দূরবর্তী স্থান সান্তিয়াগোতে যেতে প্রায় ৯০০ কিলোমিটার পাড়ি দিতে হয় ট্রেনকে। এজন্য সময় লাগে প্রায় ২৪ ঘণ্টা যা গাড়ির তুলনায় দ্বিগুণ। এ ছাড়া ট্রেন দুর্ঘটনার সংখ্যাও বেড়ে গেছে সামপ্রতিক বছরগুলোতে। কিউবার রেলওয়ে ব্যবস্থার উন্নয়নের জন্য রাশিয়ার সঙ্গে প্রায় ১ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি করেছে চীন। রাশিয়া কিউবায় উচ্চগতি সমপন্ন রেল ব্যবস্থা গড়ে তুলতে কাজ করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *