ডেমোক্রেটিক নারী এমপিদের প্রতি ট্রাম্পের বর্ণবাদী আক্রমণ

আমেরিকা লিড নিউজ

ওয়াশিংটন, যুক্তরাষ্ট্র- আবারও নারীদের প্রতি বর্ণবাদী মন্তব্য করে সমালোচনার মুখে পড়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মার্কিন কংগ্রেসে ডেমোক্রেট দলের বেশ কয়েকজন নারী এমপি সম্পর্কে বিদ্বেষমূলক টুইট করেছেন তিনি। তিনি দাবি করেছেন, ওই নারীরা নিজেরা এমন দেশ থেকে এসেছেন যেখানকার সরকার সম্পূর্ণ বিপর্যস্ত। ট্রাম্প তাদের উদ্দেশ্যে লেখেন, ‘দেশে ফিরে যাও।’ খবর বিবিসির।

কংগ্রেসের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির সঙ্গে চারজন ভিন্ন বর্ণের কংগ্রেস সদস্যদের কিছুটা সামান্য দ্বন্দ্ব হওয়ার ঘটনার এক সপ্তাহের মাথায় এমন টুইট করলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। এক সাথে করা তিনটি টুইটের মাধ্যমে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প কংগ্রেসের তিন নারীর বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র ও প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে ‘ভয়ঙ্করভাবে’ সমালোচনা করার অভিযোগ তুলেছেন।

ট্রাম্প লিখেছেন, খুবই অবাক লাগে দেখতে যখন প্রগতিশীল ডেমোক্রেট কংগ্রেসের নারী সদস্যরা, যারা এমন দেশ থেকে এসেছেন যেখানে তাদের সরকার বিপর্যস্ত, বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত এবং সবচেয়ে অদক্ষ, বিশ্বের শ্রেষ্ঠ এবং সবচেয়ে ক্ষমতাশালী দেশ যুক্তরাষ্ট্রে এসে এখানকার মানুষদের বলছে কীভাবে আমাদের সরকার পরিচালনা করতে হবে।

তিনি বলেন, তারা কেন তাদের নিজেদের অপরাধপ্রবণ দেশে ফিরে গিয়ে তাদের পরিস্থিতির উন্নয়ন করে না! তারপর ফিরে এসে আমাদের জানালেই পারে যে কীভাবে সে কাজ করলো তারা। এরপর ট্রাম্প স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির কথা উল্লেখ করেন। এর ফলে কংগ্রেসের কোন কোন নারী সদস্যকে নিয়ে তিনি মন্তব্য করেছেন তাদের নাম উল্লেখ না করলেও এটা সহজেই বোঝা যায় যে তিনি কাদের লক্ষ্য করে এমন মন্তব্য করেছেন।

চার নারী সদস্যের মধ্যে তিনজন মার্কিন নাগরিক আলেক্সান্দ্রিয়া ওকাসিও কর্টেজ, রাশিদা ত্লাইব এবং আয়ান্যা প্রেসলি। তাদের বাবা-মা অন্য দেশের নাগরিক হলেও তাদের জন্ম যুক্তরাষ্ট্রেই। তবে বাকি একজন ইলহান ওমর শিশু বয়সেই যুক্তরাষ্ট্রে এসেছিলেন।

সম্প্রতি ওকাসিও কর্টেজ স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছিলেন যে, সীমান্ত নিরাপত্তা বিল নিয়ে ডেমোক্রেটদের সঙ্গে দ্বন্দ্বের সময় ভিন্ন বর্ণের নারী কংগ্রেস সদস্যদের প্রতি বৈষম্যমূলক আচরণ করেছেন তিনি। তবে ট্রাম্পের মন্তব্যের পরই স্পিকার এক টুইট বার্তায় লিখেছেন, আমাদের বৈচিত্র্যই আমাদের শক্তি এবং একতাই আমাদের ক্ষমতা।

ট্রাম্পের এমন মন্তব্যে ডেমোক্রেটরা ছাড়াও অনেক রিপাবলিকান রাজনীতিবিদও এর সমালোচনা করেছেন। সাবেক শীর্ষ রিপাবলিকান নেতা জন ম্যাককেইনের মেয়ে মেগ্যান ম্যাককেইন যিনি নিজেও রিপাবলিকান সমর্থক কলামিস্ট তিনি বলেন: ‘এই মন্তব্য বর্ণবাদী।’ তিনি আরও বলেন, ‘এই দেশে আমরা যাদের একবার স্বাগত জানিয়েছি, তাদের আবার ফিরে যেতে বলি না।’ সামাজিক মাধ্যমে ট্রাম্পের এমন মন্তব্যের তীব্র সমালোচনা করেছেন অধিকাংশ মানুষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *