কলা গাছে বেঁধে ভাসিয়ে ভারত থেকে বাংলাদেশে গরু পাচার

ভারত

কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ- কলা গাছের গুঁড়িতে গরু বেঁধে নদীতে ভাসিয়ে বাংলাদেশে পাচার হচ্ছে শতশত গরু। ভারতের পশ্চিমবঙ্গ থেকে সীমান্তবর্তী নদী দিয়ে ভাসিয়ে দেয়া হচ্ছে এসব গরু। এমনি একটি ঘটনায় ২২৪টি গরু উদ্ধার করা হয়েছে। সেই সঙ্গে তিন বাংলাদেশিকে গ্রেফতার করেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ। খবর ইটিভি ভারতের।

কলা গাছের গুঁড়ির মাঝে গরু বেঁধে পানিতে ভাসিয়ে দেয় চোরাকারবারিরা। পশ্চিমবঙ্গের উত্তরবঙ্গ এলাকার বন্যায় ফুঁসে উঠেছে গঙ্গা। আর এই অবস্থাকে কাজে লাগিয়ে এভাবেই বাংলাদেশে গরু পাচারের ছক কষেছে চোরাকারবারিরা।

দু’দিকে দুটো কলা গাছের গুঁড়ি। মাঝখানে শক্তপোক্ত করে বাধা হয়েছে গরু। গরুর মুখ বাঁধা যাতে আওয়াজ না করতে পারে। ঘাড় ঘুরিয়ে ছিঁড়ে ফেলতে না পারে বাঁধন। এভাবেই মালদা এবং মুর্শিদাবাদের পাহাগাতি, ফুলতলা, লালপুর, কমলপুর, ধুলিয়ান সীমান্তে গঙ্গায় ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছিল দু’শর বেশি গরু।

এদিকে সতর্ক অবস্থানে থেকে বিএসএফ চোরাচালান ঠেকাতে স্পিডবোট নিয়ে বেরিয়ে পড়ে। পরে পাচারকারীদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় ১০৩টি গরু।

এদিকে রানিনগর থানা এলাকা থেকে ভোররাতে গরু পাচারের চেষ্টাকালে ১২১ টি গরু উদ্ধার করে বিএসএফ। এসময় গ্রেফতার করা হয় বাংলাদেশের রাজশাহীর জাহিরুল ইসলাম ও মোহম্মদ ডালিম রেজা এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জের মোহম্মদ রকিকে ।

বিএসএফ সূত্র জানায়, এই দলটির সঙ্গে যোগ রয়েছে ভারতীয় দুই চোরাচালানের। তারা হলেন, রানিনগরের বিন্দা মণ্ডল, ইসলামপুরের মুর্তজা শেখ। তাদের ধরতে চলছে তল্লাশি-অভিযান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *