বায়ুদূষণে দিল্লি­ এখন ‘গ্যাস চেম্বার’

ভারত

(নয়াদিল্লি, ভারত) মারাত্মক বায়ুদূষণে নাকাল নয়াদিলি­র বাসিন্দারা। দূষণ মোকাবেলায় হিমশিম খাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। ভারতের রাজধানী এখন ‘গ্যাস চেম্বারে’ পরিণত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। শুক্রবার রাজধানীর স্কুলে স্কুেল শিক্ষার্থীদের মধ্যে দূষণরোধী মাস্ক বিতরণ করেন। এ পর্যন্ত ৫০ লাখ মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি। খবর এনডিটিভির।

আম আদমি পার্টির এ নেতা দিলি­র বায়ুদূষণের জন্য পার্শ্ববর্তী দুই রাজ্য পাঞ্জাব ও হরিয়ানাকেও দায়ী করেছেন। দুই রাজ্যের প্রশাসন কৃষকদের নাড়া পোড়াতে বাধ্য করায় রাজধানীর এ বেহাল অবস্থা বলেও অভিযোগ করেন তিনি। স্কুল শিক্ষার্থীদের পাঞ্জাব ও হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রীর কাছে চিঠি লিখতেও পরামর্শ দিয়েছেন কেজরিওয়াল। পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং ও হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খাট্টারের নাম উল্লেখ করে বলেন, ‘তোমরা ক্যাপ্টেন আঙ্কেল ও খাট্টার আঙ্কেলের কাছে চিঠি লিখতে পারো। বলতে পারো, ‘দয়া করে আমাদের স্বাস্থ্যের বিষয়টি নিয়ে ভাবুন।’

কেজরিওয়াল আরও বলেন, ‘পার্শ্ববর্তী রাজ্যগুলোর ফসলের উচ্ছিষ্ট পোড়ানোর ধোঁয়ায় দিল্লি গ্যাস চেম্বারে পরিণত হয়েছে। আমরা যেন এই বিষাক্ত বাতাসের দূষণ থেকে নিজেদের রক্ষা করতে পারি, সে জন্য সচেষ্ট হতে হবে। সরকারি ও বেসরকারি স্কুলগুলোতে ৫০ লাখ মাস্ক বিতরণ শুরু করেছি আমরা। খাট্টার এবং ক্যাপ্টেনের সরকার কৃষকদের নাড়া পোড়াতে জোর করছে, যা দিল্লিতে ভয়াবহ দূষণ নিয়ে আসছে। গতকালও (বৃহস্পতিবার) পাঞ্জাব ও হরিয়ানায় মানুষ সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখিয়েছে।’

এর আগে বুধবার পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর দিল্লির দূষণের জন্য তার প্রশাসনের দায়কে উড়িয়ে দিয়েছেন। কেজরিওয়ালকে ‘মিথ্যাবাদী’ উলে­খ করে এ কংগ্রেস নেতা বলেছেন, ৫ বছরেও রাজধানীর দূষণ দূর করতে না পেরে আম আদমি পার্টির নেতা এখন এ নিয়ে রাজনৈতিক চাল চালছেন। যানবাহন ও কারখানার ধোঁয়ার পাশাপাশি আশপাশের ধান ক্ষেতগুলোতে ফসলের নাড়া পোড়াতে কৃষকের দেয়া আগুনে সৃষ্ট ধোঁয়ায় ভারতের রাজধানী নয়া দিল্লির বাতাস অক্টোবরেই ‘অস্বাস্থ্যকর মাত্রায়’ পৌঁছেছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *