‘বলিভিয়ায় গণঅভ্যুত্থান’: রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন ও রেডিও দখলে নিয়েছে বিক্ষোভকারীরা

আমেরিকা লিড নিউজ

(লাপাজ, বলিভিয়া) বলিভিয়ায় ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট ইভো মোরালেসেরের সরকারের বিরুদ্ধে গণঅভ্যুত্থান শুরু হয়েছে। রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন ও রেডিও দখলে নিয়েছে সরকার বিরোধী বিক্ষোভকারীরা। শনিবার প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে যোগ দিয়েছে ৬টি শহরের পুলিশ। এতে সমর্থন দিয়েছে রাজধানী লাপাজের পুলিশও।

ইভো মোরালেসের প্রাসাদের রক্ষায় থাকা পুলিশরাও তাদের দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন। বিক্ষোভকারীদের বাধা না দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেনাবাহিনী। ফলে বিতর্কিত নির্বাচন নিয়ে কয়েক সপ্তাহের অচলাবস্থা নিরসনে প্রবল চাপের মুখে পড়েছে সরকার। পুলিশ ও জনগণের এই অভ্যুত্থানের নিন্দা জানিয়েছেন মোরালেস। বলেছেন, এই অভ্যুত্থান বলিভিয়ার ‘গণতন্ত্র’কে ঝুকির মধ্যে ফেলছে।

গত ২০ অক্টোবর প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ইভো মোরালেসের বিরুদ্ধে কারচুপির অভিযোগ আনে বিরোধী দল। এরপর থেকে  দক্ষিণ আমেরিকার দেশটিতে বিক্ষোভ চলছে। এতে একাধিক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে।  এভো মোরালেস চতুর্থবারের মতো ক্ষমতায় আসীন হয়েছেন I

বিতর্কিত নির্বাচনে তার বিজয় নিয়ে প্রতিবাদ-বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে গত মাস থেকেই I তবে সেই বিক্ষোভ সমাবেশে নুতন সংযোজন এখন সে দেশের পুলিশ বাহিনী I শুক্রবার ভিডিওতে প্রতিবাদকারীদের সঙ্গে পুলিশের করমর্দনের ছবি দেখানো হয়, যারা কিছুদিন আগেও বিক্ষোভকারীদের দমনে লিপ্ত ছিলেন I বিক্ষোভকারীদের স্লোগান দিতে শোনা যায় ‘পুলিশ আমাদের বন্ধু ও জনগণ তোমাদের পাশেI’

শনিবার পুলিশের সহায়তায় দুই গুরুত্বপূর্ণ হাউস দখল করে নেয় বিক্ষোভকারীরা। মিডিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ, মোরালেসের স্বার্থ সিদ্ধিতে সহায়তা করছে তারা। রাষ্ট্রীয় টিভি ও রেডিওর প্রধান ইভান মেলডোনাডো বলেন, কার্যালয়ের বাইরে জড়ো হওয়া বিক্ষোভকারীদের হুমকির মুখে আমাদের জোর করে বের করে দেয়া হয়েছে। তবে বিদ্রোহী পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ নেয়া হবে না বলে ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী।  খবর আলজাজিরা ও বিবিসির।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *