‌’পুতিনের স্ত্রী’ পরিচয় দিয়ে ফেসে গেলেন এক নারী

ইউরোপ

(মস্কো, রাশিয়া) নিজেকে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ­াদিমির পুতিনের স্ত্রী পরিচয় দিয়ে ফেসে গেলেন এক নারী। ৩৬ বছর বয়সী এই নারী ইউক্রেনের নাগরিক। নাম নাতালিয়া। তার দাবি, পুতিন তাকে বিয়ে করেছেন। তিনি তার স্বামীর সঙ্গে দেখা করতে চান। সন্দেহজনক হওয়ায় ওই নারীকে আটক করেছে কর্তৃপক্ষ। বুধবার তাকে আটক করা হয়। রুশ সংবাদ মাধ্যমে এ খবর জানানো হয়েছে।

পুতিনের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে খুব কমই জানান যায়। নিজের জীবন নিয়ে গোপনীয়তা বজায় রাখতে পছন্দ করেন রুশ প্রেসিডেন্ট। তার বিয়ে ও সংসার নিয়ে প্রায়ই গুঞ্জন শোনা যায়। রাশিয়ার সরকারি তথ্য অনুযায়ী ২০১৪ সালে স্ত্রী লুডমিলাকে তালাক দেন ৬৭ বছর বয়সী পুতিন। তখন থেকেই একাকি বসবাস করছেন তিনি। তাদের দুই কন্যা সন্তান রয়েছে। তবে গত বছর গুঞ্জন শুরু হয়, অলিম্পিকের সাবেক জিমম্যাস্ট এলিনা কাবেইভা নামে ৩২ বছরের এক তরুণীর সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা রয়েছে রুশ প্রেসিডেন্টের।

খবরে বলা হয়েছে, বুধবার রেড স্কয়ার পরিদর্শনে যান পুতিন। সেখানে তার সঙ্গে দেখা করার চেষ্টা করেন নাতাালিয়া। বাধা পেয়ে নিজেকে পুতিনের স্ত্রী বলে দাবি করে চিৎকার শুরু করেন। সেই সঙ্গে তার সঙ্গে দেখা করার জোর দাবি করেন। এতে উপস্থিত মানুষ তার প্রতি আগ্রহী হয়ে ওঠে।

সন্দেহভাজন আচরণের জন্য রাশিয়ার ফেডারেল প্রটেক্টিভ সার্ভিস তাকে আটক পুলিশের হাতে তুলে দেয়। রুশ সংবাদমাধ্যম স্পুটনিক নিউজ জানিয়েছে, ধারণা করা হচ্ছে ওই নারী মানসিক রোগ সিজোফ্রেনিয়ায় আক্রান্ত। আর এই সন্দেহ থেকেই তাকে মানসিক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *