পাকিস্তানে সেনাপ্রধানের মেয়াদ বৃদ্ধি নিয়ে সরকার ও সুপ্রিম কোর্ট মুখোমুখি

পাকিস্তান লিড নিউজ

(ইসলামাবাদ, পাকিস্তান) পাকিস্তানে দেশটির সেনাপ্রধান জেনারেল কমর জাভেদ বাজওয়ার চাকরির মেয়াদ বৃদ্ধি নিয়ে দৃশ্যত মুখোমুখি অবস্থানে ইমরান খানের সরকার ও সুপ্রিম কোর্ট। সেনাপ্রধানের মেয়াদ নতুন করে আরও তিন বছরের জন্য বৃদ্ধি করে ১৯শে আগস্ট একটি নোটিফিকেশন জারি করেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। মঙ্গলবার এক পিটিশনের ওপর শুনানিতে ইমরানের ওই নোটিফিকেশনের বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তোলে সুপ্রিম কোর্ট। সেই সঙ্গে ইমরান খানের ওই নোটিফিকেশন বুধবার শুনানি না হওয়া পর্যন্ত স্থগিত করেছেন।

এক্সপ্রেস ট্রিবিউন জানিয়েছে, সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্তের পর পরই মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রীপরিষদের বৈঠক বসে। তাতে নতুন করে সেনাপ্রধানের মেয়াদ বৃদ্ধির বিষয়ে অনুমোদন দেয় মন্ত্রীপরিষদ।

সেনাপ্রধানের মেয়াদ বৃদ্ধি করে এর আগে ইমরান খান যে নোটিফিকেশন জারি করেছিলেন তাকে চ্যালেঞ্জ করে একজন পিটিশন দিয়েছিলেন আদালতে। মঙ্গলবার তা আমলে নেয় আদালত। তবে এদিন ওই বেঞ্চের সামনে পিটিশনার বা আবেদনকারী উপস্থিত ছিলেন না। উল্টো তিনি হাতে লেখা একটি আবেদন পাঠান আদালতে। তাতে তার পিটিশন প্রত্যাহার করার আবেদন জানান। কিন্তু পিটিশনারের এই অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করেন আদালত।

উল্টো সংবিধানের অনুচ্ছেদ ১৮৪(৩) ধারার অধীনে এই আবেদনকে সুয়োমোটো নোটিশে পরিণত করেন আদালত। বিচারকদের কাছে সন্তোষজনক জবাব দিতে ব্যর্থ হন এটর্নি জেনারেল। ফলে আদালত ইমরানের ওই নোটিফিকেশন স্থগিত করেন। ততক্ষণে আগে থেকেই শিডিউল করা একটি মিটিংয়ে বসে মন্ত্রীপরিষদ। এতে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। রুদ্ধদ্বার বৈঠকে দীর্ঘ আলোচনা হয়। এক ঘন্টার বিরতি দেয়া হয় বৈঠকে।

পরে তা সন্ধ্যায় আবার বৈঠকে বসে মন্ত্রীপরিষদ। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ নিয়ে আলোচনার জন্য মূলত এই বৈঠক। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে কি কি করণীয় আছে তা নিয়ে আলোচনা হয়। এর কয়েক ঘন্টা পরে মন্ত্রীপরিষদের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করতে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত হন সিনিয়র মন্ত্রীরা। এর মধ্যে ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী শাফকাত মাহমুদ, রেলওয়ে মন্ত্রী শেখ রশিদ, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী শাহজাদ আকবার প্রমুখ।

এতে শাফকাত মাহমুদ বলেন, সুপ্রিম কোর্টের পর্যবেক্ষণের পর সেনাপ্রধান জেনারেল কমরকে নতুন করে নিয়োগের বিষয়ে দেয়া আগের নোটিফিকেশন প্রত্যাহার করেছে মন্ত্রীপরিষদ। এবং নতুন একটি সারসংক্ষেপ অনুমোদন দিয়েছে। এ জন্য আর্মি রেগুলেশনসের ২৫৫ নম্বর আইন সংশোধন করেছে মন্ত্রীপরিষদ।

তাতে ‘এক্সটেনশন ইন দ্য সার্ভিস’ বা দায়িত্বে মেয়াদ বৃদ্ধি বিষয়ক নতুন শব্দ যুক্ত করা হয়েছে। এর সংক্ষিপ্তসার অনুমোদন করেছে মন্ত্রীপরিষদ। মন্ত্রী আরও বলেন, আগের নোটিফিকেশনে সরকার কোনো নিয়ম ভঙ্গ করে নি। তবে আদালতকে সহযোগিতার জন্য রেগুলেশন সংশোধন করেছে সরকার। ব্যতিক্রমী পরিস্থিতির কারণে সেনাপ্রধানের মেয়াদ বৃদ্ধি করতে চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *