ভারতের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ছয় বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন

ভারত লিড নিউজ

(নয়াদিল্লি, ভারত) ভারতের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এখন গত ছয় বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন। ২০১৯-২০ অর্থবছরের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) প্রবৃদ্ধির হার কমে দাঁড়িয়েছে মাত্র ৪.৫ শতাংশে। আগের ত্রৈমাসিকে এ হার ছিল ৫ শতাংশ। আর ২০১৮ সালের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে ছিল ৭ শতাংশ। শুক্রবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে এনডিটিভি।

অর্থনীতিবিদদের আশঙ্কা ছিল, এ অর্থবছরের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে প্রবৃদ্ধির হার নেমে দাঁড়াবে ৪ দশমিক ৭ শতাংশে। কিন্তু বাস্তব পরিসংখ্যান সেই আশঙ্কাকেও হার মানিয়েছে। ২০১৩ সালের জানুয়ারি-মার্চের পর এই প্রথম ভারতের প্রবৃদ্ধি ৫ শতাংশের নিচে নামলো। সে সময় এ হার ছিল ৪ দশমিক ৩ শতাংশ।

সরকারের প্রত্যাশা, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির গতি আবারও বাড়বে। কেননা, গত কয়েক মাসে অর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে একাধিক পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। বিদেশি বিনিয়োগকারীদের ওপর অধিক কর প্রত্যাহার থেকে শুরু করে কর্পোরেট কর কমানোর মতো পদক্ষেপ নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। বুধবার ভারতের রাজ্যসভায় দেশটির অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন বলেছেন, প্রবৃদ্ধি আরও কমতে পারে। কিন্তু এটা মন্দা নয়। কখনোই মন্দা হবে না।

এদিকে খরচ কমাতে বিদেশ সফরের বিরতিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি কোনও হোটেলে উঠেন না বলে জানিয়েছেন দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তিনি বলেন, মোদির কাছে খরচ বাঁচানো খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বিদেশ সফরে যাত্রাবিরতি কিংবা কারিগরি বিরতির সময় তিনি বিমানবন্দরের টার্মিনালেই বিশ্রাম নেন। কোনও পাঁচ তারকা হোটেলে উঠেন না।

অমিত শাহ আরও বলেন, নিজের ব্যক্তিগত ও রাজনৈতিক জীবনে খুবই নিয়ম মেনে চলেন মোদি। বিদেশ গেলে বহরে বেশি গাড়ি নেওয়াও পছন্দ নয় তার। আগে সরকারি কর্মকর্তারা আলাদা আলাদা গাড়ি ব্যবহার করতেন। এখন সবাই বাসে কিংবা বড় গাড়িতে যান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *