ইরানে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার হুমকি ইসরাইলের

মধ্যপ্রাচ্য লিড নিউজ

তেলআবিব, ইসরাইল- প্রকাশ্যেই ইরানে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার হুমকি দিয়েছে ইসরাইল। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইসরাইল কাৎজ বলেছেন, ইরানের পরমাণু কর্মসূচী থামাতে সামরিক হামলা অন্যতম অপশন। তিনি আরও বলেন, তেহরান রেড লাইন অতিক্রম করলে যুক্তরাষ্ট্র, সৌদি আরব এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের সাহায্যে ইরানের ওপর টমাহক ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র মারা হবে। শনিবার ইতালির একটি সংবাদ মাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ইসরাইলি পররাষ্ট্রমন্ত্রী এই হুমকি দেন।

ইসরায়েল কাৎজ বলেন, ইরানের ওপর বোমা বর্ষণের বিষয়টিও ইসরাইলের বিবেচনায় রয়েছে। ইহুদিবাদী এ মন্ত্রী বলেন, আমরা ইরানকে পরমাণু অস্ত্রের মজুদ গড়ে তোলার সুযোগ দেব না। ইরান যদি তা করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে সর্বশেষ উপায় হিসেবে আমরা সামরিক ব্যবস্থাকে বেছে নেব।

ইসরায়েল কাৎজ আরও বলেন, ইরান যদি রেড লাইন অতিক্রম করে তাহলে তারা সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং আমেরিকার ঐক্যবদ্ধ ফ্রন্টকে মোকাবেলা করতে বাধ্য হবে যে ফ্রন্ট ইরানের উপরে শত শত টমাহক ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করবে।

কেন ইসরাইল এবং ইরান একে অপরের শত্রু

১৯৭৯ সালে ইরানে বিপ্লবের পর সেখানে ধর্মীয় নেতারা ক্ষমতার কেন্দ্রবিন্দুতে চলে আসে। ইরানের সেই সব নেতারা ইসরাইলকে বর্জন করার আহ্বান জানায়। ইসরাইলের অস্তিত্বকেই অস্বীকার করে ইরান। তারা বিবেচনা করে ইসরাইল অবৈধভাবে মুসলমানদের ভূমি দখল করে রেখেছে।

এদিকে ইসরাইল তাদের অস্তিত্বের জন্য ইরানকে তাদের হুমকি হিসেবে দেখে। ইসরাইল সব সময় বলে এসেছে ইরানের অবশ্যই পরমাণু অস্ত্র থাকা উচিত হবে না। ইসরাইলের নেতারা মধ্যপ্রাচ্যে ইরানের যে বিস্তৃতি সেটা দেখে উদ্বিগ্ন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *