অষ্ট্রেলিয়ায় নব্বই হাজার প্রাণীর জীবন বাঁচিয়েছে`ক্রোকোডাইল ম্যান’ স্টীভ আরউইনের পরিবার

এশিয়া প্যাসিফিক

মেলবোর্ন, অস্ট্রেলিয়া- বন্যপ্রাণী সংরক্ষণে অবদান রেখে বিশ্বজুড়ে সুনাম কুড়িয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার টেলিভিশন উপস্থাপক স্টিভ আরউইন ওরফে ক্রোকোডাইল ম্যান। ২০০৬ সালে তার মৃত্যুর পর সেই দায়িত্ব নিজেদের কাঁধে তুলে নিয়েছে তার পরিবার।

স্টিভের মেয়ে বিন্দি আরউইন ও পরিবারের অন্যরা মিলে এখন পর্যন্ত ৯০ হাজারেরও বেশি বন্যপ্রাণীকে উদ্ধার ও চিকিৎসা দিয়েছেন। অস্ট্রেলিয়ার সাম্প্রতিক দাবানলের ভয়াবহতার মধ্যেও বহু বন্যপ্রাণীর উদ্ধার ও সুরক্ষা দিয়ে যাচ্ছে তারা।

কুইন্সল্যান্ড অঙ্গরাজ্যে ‘অস্ট্রেলিয়া জু’ নামে একটি চিড়িয়াখানা পরিচালনা করে থাকে আরউইন পরিবার। দেশটির সাম্প্রতিক ভয়াবহ দাবানলের সময় আক্রান্ত বহু বন্যপ্রাণীকে এই চিড়িয়াখানায় চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এক হাজার একরেরও বেশি জায়গা জুড়ে বিস্তৃত এই চিড়িয়াখানাটি দাবানলে আক্রান্ত হয়নি।

আরউইন পরিবার পরিচালিত ওয়াইল্ডলাইফ হাসপাতালের ৯০ হাজারতম রোগী ছিল ওলি নামের একটি প্লাটিপাস। স্টিভ আরউইনের সন্তান রবার্ট আরউইন গত বৃহস্পতিবার এক ইন্সট্রাগ্রাম পোস্টে লিখেছেন, অস্ট্রেলিয়ার ভয়াবহ দাবানলে ক্ষতিগ্রস্থ মানুষ ও বণ্যপ্রাণীদের জন্য তার হৃদয় কাঁদছে।

বিন্দি আরউইন জানিয়েছেন, অন্য যেকোনও সময়ের চেয়ে তাদের বণ্যপ্রাণী হাসপাতালটি দাবানলের সময়ে বেশি ব্যস্ত রয়েছে। তিনি বলেন, ‘আমাদের বাবা-মা আমাদের অস্ট্রেলিয়া জু ওয়াইল্ডলাইফ হাসপাতালটি আমার দাদীকে উৎসর্গ করেছেন। বন্যপ্রাণের সেবা ও যত সম্ভব তত প্রাণের জীবন বাঁচানোর মধ্য দিয়ে তাকে সম্মান জানানো চালিয়ে যাবো।’

প্রসঙ্গত , অস্ট্রেলিয়ায় গত সেপ্টেম্বর শুরু হওয়া দাবানলে এখন পর্যন্ত বিভিন্ন প্রজাতির প্রায় ৫০ কোটি প্রাণী প্রাণ হারিয়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। সিডনি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস্তুবিদরা আশঙ্কা করছেন, অব্যাহত দাবানলে স্তন্যপায়ী প্রাণী, পাখি ও সরীসৃপ জাতের অন্তত ৪৮ কোটি প্রাণী জীবন হারিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *