মারা গেলেন করোনাভাইরাস শনাক্তকারী ’বীর’ চিকিৎসক

চীন

বেইজিং, চীন- নিশ্চিত ঝুঁকি জেনেও তিনি ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের সেবায় নিজেকে ব্যস্ত রেখেছিলেন। এরপর তিনি নিজেই ভাইরাস সংক্রমণে অসুস্থ হয়ে পড়েন। একথা সামাজিক গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর থেকেই লি ওয়েনলিংকে চীনের জনগণ একজন জাতীয় বীর মনে করছেন।

লি ওয়েনলিয়াং নামের এই চিকিৎসক উহানের কেন্দ্রীয় হাসপাতালে কর্মরত ছিলেন। এখানে দায়িত্বপালনের সময় গত বছরের ডিসেম্বরের শেষদিকে তিনিই সর্ব প্রথম সার্সের মতো নতুন একটি করোনা গোত্রের ভাইরাসের সংক্রমণ শণাক্ত করেছিলেন।

এই তথ্য প্রকাশের কারণে স্থানীয় প্রশাসন ওয়েনলিয়াংকে জেরা করে। প্রশাসন এসময় তার বিরুদ্ধে গুজব ছড়িয়ে জনমনে আতঙ্ক তৈরির অভিযোগ আনে। পরবর্তীতে অবশ্য এই খবর সামাজিক গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তাকে মুখ বন্ধ রাখার শর্তে মুক্তি দেয়া হয়। সে সময় কর্তৃপক্ষ লি ওয়েনলিয়াংয়ের কথায় কান দিলে ভাইরাসের সংক্রমণ আরও কার্যকর ভাবে প্রতিহত করা যেতো।

ওয়েনলিয়াংয়ের খবর সামাজিক গণমাধ্যমে ছড়িয়ে দেন তার এক সহকর্মী। এরপর থেকেই লি ওয়েনলিংকে চীনের জনগণ একজন জাতীয় বীর মনে করছেন। কারণ, নিশ্চিত ঝুঁকি জেনেও তিনি ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের সেবায় নিজেকে ব্যস্ত রেখেছিলেন। এরপর তিনি নিজেও ভাইরাস সংক্রমণে অসুস্থ হয়ে পড়েন। 

গত শুক্রবার স্থানীয় সময় সকলাবেলা তিনি উহান সেন্ট্রাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। হাসপাতাল কতৃপক্ষ এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *