জার্মানির ১৬ প্রদেশে ১০টিতেই করোনা শনাক্ত

ইউরোপ

চীনের গণ্ডি পেরিয়ে বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী কভিড ১৯ বা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ইউরোপে দেশ জার্মানি। এখন পর্যন্ত দেশটিতে এ ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে দেড় শতাধিক। জার্মানির ১৬টি প্রদেশের মধ্যে ইতোমধ্যে ১০টি প্রদেশে এই ভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সন্ধান পাওয়া গেছে।

শুক্রবার পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৬৬ কিন্তু দুই দিনের ব্যবধানে এই সংখ্যা দাঁড়িয়েছে দেড় শতাধিকে। ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে এরই মধ্যে বার্লিন আন্তর্জাতিক পর্যটন মেলাসহ বেশ কয়েকটি বড়বড় আন্তর্জাতিক ইভেন্টগুলো বাতিল করা হয়েছে।

প্রাণঘাতী এ ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় কিছুটা আতঙ্ক বিরাজ করছে সবখানে। জার্মানির স্বাস্থ্যমন্ত্রী জেনস স্পাহন আজ সোমবার একটি সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ভাইরাসটি আমাদের স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে চাপের মধ্যে ফেলবে। সাধারণ মানুষের সুরক্ষায় সরকার বদ্ধপরিকর বলেও জানিয়েছেন তিনি।

সবথেকে বেশি মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে নর্থ রাইন-ওয়েস্টফালিয়া রাজ্যে। জনবহুল এ রাজ্যটিতে কয়েকটি স্কুল এবং ডে কেয়ার সেন্টারে কয়েকজন কর্মীর করোনাভাইরাস সংক্রমণ ধরা পড়ার পর সোমবার থেকে এই কেন্দ্রগুলি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

করোনা ভাইরাস আতঙ্কে সুপারমার্কেট থেকে দ্রুত ফুরিয়ে যাচ্ছে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য। এদিকে করোনা ভাইরাসের কারণে জার্মানি প্রবাসী বাংলাদেশিরাও কিছুটা আতঙ্কে রয়েছেন।

গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে প্রাণঘাতী এই করোনাভাইরাস এখন পর্যন্ত বিশ্বের ৬০টি দেশে ছড়িয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এই ভাইরাসের বিস্তারের ঘটনায় বৈশ্বিক স্বাস্থ্যের জন্য জরুরি অবস্থা জারি করে মহামারির শঙ্কা প্রকাশ করেছে।

চীনে ২ হাজার ৯১২ জনের প্রাণ কেড়ে নেয়া এই ভাইরাস এখন বিশ্বের অর্ধ-শতাধিক দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৯ হাজার ৭৮৮ জন। এরমধ্যে শুধুমাত্র চীনেই আক্রান্ত হয়েছেন ৮০ হাজার ২৬ জন। চীনের বাইরে সাত মহাদেশে ছড়িয়ে পড়া এই ভাইরাসে প্রাণ গেছে ১৩৬ জনের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *