পার্লামেন্ট ভেঙে দিলেন শ্রীলংকান প্রেসিডেন্ট, এপ্রিলে আগাম নির্বাচন

এশিয়া প্যাসিফিক পূর্ব এশিয়া লিড নিউজ

কলম্বো, শ্রীলঙ্কা- শ্রীলঙ্কার পার্লামেন্ট ভেঙে দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে। সোমবার এই সিদ্ধান্তের পাশাপাশি নির্ধারিত সময়ের ছয় মাস আগে এপ্রিলে নতুন সংসদীয় নির্বাচন আয়োজনের ঘোষণা দিয়েছেন। আলজাজিরা এখবর জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে, সাংবিধানিক ক্ষমতা প্রয়োগ করে পার্লামেন্ট ভেঙে দিয়েছেন লঙ্কান প্রেসিডেন্ট এবং ২৫ এপ্রিল নতুন নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেছেন। দেশটির সংবিধান অনুসারে, পাঁচ বছর মেয়াদের মধ্যে সাড়ে বছর পর চাইলে প্রেসিডেন্ট পার্লামেন্ট ভেঙে দিতে পারেন।

২০১৯ সালের নভেম্বরে নির্বাচিত হয়েছিলেন রাজাপাকসে। কিন্তু অভিযোগ করে আসছিলেন তিনি মুক্তভাবে কাজ করতে পারছেন না তার ক্ষমতা খর্ব করার কারণে। এছাড়া পার্লামেন্টে তার সংখ্যাগরিষ্ঠতা না থাকার কারণে বিভিন্ন বাধার মুখোমুখিও তাকে হতে হয়েছে। এক বিবৃতিতে নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, নতুন পার্লামেন্টের অধিবেশন বসবে ১৪ মে।

সাবেক প্রেসিডেন্ট মৈত্রিপালা সিরিসেনা প্রেসিডেন্টের ক্ষমতা কমিয়ে তা পার্লামেন্ট ও স্বতন্ত্র কমিশনের কাছে ন্যস্ত করেন। সংবিধানের এই পরিবর্তনের ফলে রাজনৈতিক ক্ষমতার দুটি কেন্দ্র তৈরি হয়। প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রী, প্রধানমন্ত্রীর কাছে পার্লামেন্ট ও সরকারের মন্ত্রীদের দায়িত্ব রয়েছে। রাজাপাকসের ভাই ও সাবেক প্রেসিডেন্ট মাহিন্দা রাজপাকসে এখন শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী ও সরকারের নেতৃত্বে রয়েছেন। সংবিধান পরিবর্তন করতে হলে রাজাপাকসের দুই-তৃতীয়াংশ পার্লামেন্ট সদস্যের সমর্থন প্রয়োজন।

সাবেক সরকারের নিরাপত্তা ও গোয়েন্দা কর্মকাণ্ডে ব্যর্থতার সমালোচনা করে ক্ষমতায় আসেন রাজাপাকসে। বিশেষ করে দেশটির ২৬ বছরের গৃহযুদ্ধের অবসানের পর ইস্টার সানডেতে বোমা হমলায় আড়াই শতাধিক মানুষ নিহতের সরকার সমালোচনার মুখে পড়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *