রাশিয়ায় নিষিদ্ধ হচ্চে সমকামী বিয়ে

ইউরোপ

মস্কো, রাশিয়া- রাশিয়ায় এবার সাংবিধানিক ভাবে নিষিদ্ধ হতে চলেছে সমকামী বিয়ে। সংবিধান সংশোধনের যে খসড়া রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন তৈরি করেছেন তাতে ‘বিয়ে’ বলতে নারী এবং পুরুষের সম্পর্ক বলে ঘোষণা করা হবে। এই সংশোধনী পাশ হলে স্বাভাবিক নিয়মেই অন্য সকল বিয়ে বেআইনি এবং অসাংবিধানিক হয়ে যাবে।

পুতিন চিরকালই রক্ষণশীল ঘরানার রাজনীতিক। কিন্তু চতুর্থবারের জন্য ক্ষমতায় আসার পর যেন তিনি একটু বেশিই রক্ষণশীল হয়ে পড়েছেন। এর জন্য রুশ সমাজের রক্ষণশীল অংশ এবং অর্থোডক্স চার্চের সমর্থনও পাচ্ছেন তিনি। সেই সমর্থন সঙ্গে নিয়েই এই নতুন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

সংবিধান সংশোধনের নতুন এই খসড়া এখনও জনসমক্ষে আনা হয়নি। তবে রাশিয়ার নিম্নকক্ষ ‘ডুমা’ এ নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেছে। তারাই জানিয়েছে, ‘এটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় যে বিয়ে এখন থেকে শুধুমাত্র নারী এবং পুরুষের সম্পর্ক বলেই বিবেচিত হবে।’ এমন প্রস্তাব আনার জন্য প্রেসিডেন্টতে ধন্যবাদও জানিয়েছেন তিনি।

পার্লামেন্টে এই সংশোধনী বিল পাশ হওয়ার পর তার উপর গণভোট হবে। প্রস্তাবটি যেহেতু সরাসরি প্রেসিডেন্টের কাছ থেকে এসেছে, তাই সর্বস্তরেই তা পাশ হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষকেরা। গত মাসেই একটি অনুষ্ঠানে পুতিন বলেছিলেন, ‘প্রথম অভিভাবক এবং দ্বিতীয় অভিভাবকের কথা বলা হচ্ছে। কিন্তু আমি বলে দিতে চাই, যতদিন প্রেসিডেন্ট থাকব এ সব হবে না। মা এবং বাবা- এটাই শেষ কথা।’

১৯৯৩ সালের পর এই প্রথম রাশিয়ায় সংবিধান সংশোধন করা হচ্ছে। জানুয়ারিতে সরকার ভেঙে দেওয়ার সময় পুতিন জানিয়ে ছিলেন যে তিনি সংবিধান সংশোধন করবেন। অনেকে ভেবেছিলেন, সংশোধন করে ফের নিজের প্রেসিডেন্ট হওয়ার পথ প্রশস্ত করবেন পুতিন। কিন্তু আপাতত তেমন কিছু হওয়ার কোনও ইঙ্গিত মেলেনি। নতুন খসড়া সম্পর্কে যেটুকু প্রকাশ্যে এসেছে তাতে এই বিয়ের অংশটুকু ছাড়া থাকছে রাশিয়াকে সোভিয়েতের উত্তরাধিকারী ঘোষণা করার বিষয়টিও।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *