পুলিৎজার পুরস্কার: কারা কারা পেল এ বছরের সাংবাদিকতার নোবেল

ভারত

নিউইয়র্কের কলোম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে সোমবার সাংবাদিকতার নোবেল খ্যাত পুলিৎজার পুরস্কার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়। সাংবাদিকতা, বই, নাটক এবং সঙ্গীত বিভাগে এই সম্মান দেয়া হয়।

কাশ্মীরের তিন চিত্রসাংবাদিক

একটি ছবি এক হাজার শব্দের সমান৷ সাংবাদিকতায় বহু পুরনো এবং চিরসত্য একটি প্রবাদ৷ কাশ্মীরের তিন চিত্র সাংবাদিকের ছবিগুলোও এমনই৷ ফিচার ফটোগ্রাফিতে ২০২০ সালের পুলিত্‍জার পুরস্কার পেলেন কাশ্মীরের তিন চিত্র সাংবাদিক দার ইয়াসিন, মুখতার খান ও চন্নি আনন্দ৷

ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর রাবার বুলেটে গলে গেছে এই কাশ্মীরি শিশুর এক চোখ। কাশ্মীরি চিত্র সাংবাদিকের ক্যামেরায় উঠে এসেছে এই ছবি

তারা তিন জনেই সংবাদ সংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসের (এপি) সাংবাদিক৷ ২০১৯ সালে ৫ অগাস্টে জম্মু-কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বাতিল করে কেন্দ্রীয় সরকার৷ তারপর দীর্ঘ দিন কাশ্মীর লকডাউন ছিল৷ এমনকী ফোন, ইন্টারনেট পর্যন্ত ছিল না কাশ্মীরে৷ কাশ্মীরের খবর বাইরের জগত্‍ পায়নি৷ সেই ছাই চাপা আগুনে কাশ্মীরের ছবি তুলেছিলেন এই তিন সাংবাদিক৷

আরও পড়তে পারেন- দেশ ভাগের পর এত খারাপ অবস্থা আর দেখা যায়নি ভারতে: মোদি সরকারকে সোনিয়ার তোপ

জম্মু-কাশ্মীরে গোলাগুলিতে মেজরসহ নিহত ৫ ভারতীয় সেনা

তাপ দিয়ে করোনাভাইরাস মেরে ফেলার যন্ত্র আবিস্কারের দাবি ভারতের

তিন চিত্র সাংবাদিককে শুভেচ্ছা বার্তা রাহুল গান্ধী-ওমর আবদুল্লাহর

এই অসাধারণ কাজের জন্যেই পুলিত্‌জার জয়ী তিন চিত্রগ্রাহককে তাদের এই অনন্য সাফল্যের জন্যে ট্যুইটারে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। ট্যুইটে রাহুল গান্ধী লিখেছেন, ‘ভারতীয় চিত্র সাংবাদিক দার ইয়াসিন, মুখতার খান এবং ছান্নি আনন্দকে অনেক অনেক শুভেচ্ছা পুলিত্‍জার পুরস্কার জেতার জন্যে। আপনাদের ক্যামেরায় উঠে এসেছে জম্মু-কাশ্মীরের অনন্য দলিল। আপনারা আমাদের গর্বিত করেছেন।’

ট্যুইটে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এবং ন্যাশনাল কনফারেন্সের প্রধান ওমর আব্দুল্লাও। তিনি লিখেছেন, ‘গত এক বছর কাশ্মীরের সাংবাদিকদের জন্যে খুবই কঠিন সময় গিয়েছে। গত ৩০ বছরও মোটেই সহজ ছিল না আপনাদের জন্যে। শুভেচ্ছা দার ইয়াসিন, মুখতার খান এবং ছান্নি আনন্দ এই পুরস্কার পাওয়ার জন্যে। আরও শক্তিশালী হয়ে উঠুক আপনাদের ক্যামেরা।’

দ্বিতীয়বার পুলিৎজার জিতে ইতিহাস কলসন হোয়াইটহেডের

দ্বিতীয়বারের মত ফিকশনে পুলিৎজার পুরস্কার পেয়ে ইতিহাসের পাতায় নাম লেখালেন যুক্তরাষ্ট্রের লেখক কলসন হোয়াইটহেড। বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, পুলিৎজারের ইতিহাসে হোয়াইটহেড হলেন চতুর্থ লেখক, যিনি ফিকশনে দুইবার এ পুরস্কার পেলেন।

আফ্রিকান বংশোদ্ভূত এই আমেরিকান লেখক এবার পুলিৎজার পেয়েছেন ‘দ্য নিকেল বয়েজ’ উপন্যাসের জন্য, যেখানে তিনি ফ্লোরিডার এক সংশোধনাগারে কৃষ্ণাঙ্গ কিশোরদের নিগ্রহের কথা বর্ণনা করেছেন। ৫০ বছর বয়সী হোয়াইটহেড এর আগে ২০১৭ সালে ‘আন্ডারগ্রাউন্ড রেলরোড’ উপন্যাসের জন্য একই বিভাগে পুলিৎজার পান।

তার আগে কেবল বুথ টারকিংটন, উইলিয়াম ফকনার ও জন আপডাইক দুইবার করে ফিকশনে পুলিৎজার জিতেছেন। করোনাভাইরাসের মহামারীর কারণে এবারের পুলিৎজার পুরস্কারের ঘোষণা পিছিয়ে দেওয়া হয়েছিল কয়েক সপ্তাহ।

নিউইয়র্ক টাইমস

এ বছর সাংবাদিকতার ক্যাটাগরিগুলোতে সর্বোচ্চ তিনটি পুরস্কার জিতে নিয়েছেন নিউইয়র্ক টাইমসের সাংবাদিকরা। এর মধ্যে ব্রায়ান রোজেনথাল নিউইয়র্কে সুদের কারবারির ঋণের ফাঁদে ট্যাক্সি চালকদের দুর্দশার চিত্র তুলে এনে অনুসন্ধানী প্রতিবেদন ক্যাটাগরির সম্মানজনক পুরস্কারটি পেয়েছেন।

জনস্বার্থে সাংবাদিকতা ক্যাটাগরিতে এবার যৌথভাবে পুলিৎজার পেয়েছে প্রোপাবলিকা ও অ্যাংকরেজ ডেইলি। হংকং বিক্ষোভের ছবির জন্য ‘ব্রেকিং নিউজ ফটোগ্রাফি’ ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছেন রয়টার্সের একজন আলোকচিত্রী।  

এবারই প্রথম অডিও রিপোর্টিং ক্যাটাগরিতে পুরস্কার দেওয়া হয়েছে পুলিৎজারে। সেই পুরস্কার পেয়েছে ‘দিস আমেরিকান লাইফ’ নামের একটি রেডিও অনুষ্ঠান।

নিউইয়র্কার ও রয়টার্স

পুলিৎজারপ্রাপ্ত ছবির মধ্যে রয়েছে দ্য নিউইয়র্কার পত্রিকার সাংবাদিক ব্যারি ব্লিটের আঁকা একটি ছবিও। ২০১৯ সালের ৩ জুন ছবিটি ছাপা হয়। অসাধারণ এই কাজের জন্য নগদ ১৫ হাজার ডলার পেয়েছিলেন ব্লিট। এছাড়া গত বছর হংকং বিক্ষোভের সময় দুৰসাহসী কিছু ছবির জন্য পুলিৎজার পুরস্কার দেয়া হয়েছে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থাটিকেও।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *