ঘাড়ে পা দিয়ে কৃষ্ণাঙ্গ যুবককে হত্যা

ঘাড়ে পা দিয়ে কৃষ্ণাঙ্গ যুবক হত্যা করল মার্কিন পুলিশ

আমেরিকা

যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটায় ঘাড়ে পা দিয়ে এক কৃষ্ণাঙ্গ যুবক হত্যা করেছে দেশটির পুলিশ। জালিয়াতির অভিযোগে ধাওয়া করে আটক করার পর রাস্তার ওপরেই হাঁটুর মধ্যে চেপে শ্বাসরোধে হত্যা করে মিনেসোটার শ্বেতাঙ্গ এক পুলিশ অফিসার।

সোমবারের (২৫ মে) ওই ঘটনা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। গলা চেপে ধরে হতার এই ঘটনা দেশটিতে বর্ণবাদ ও সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে পুলিশের নৃশংসতাকে আবারও সামনে এনেছে। খবর এবিসি নিউজ, ডেইলিমেইল।

মিনেসোটার পুলিশ প্রধান জানিয়েছেন, তাতে জড়িত চার পুলিশ অফিসারকে বরখাস্ত করা হয়েছে। তবে পুলিশ অফিসারদের নাম প্রকাশ করা হয়নি। নিহত যুবক জর্জ লয়েডের পরিবারের আইনজীবী ভিডিওতে দেখা দুই পুলিশ অফিসারকে শনাক্ত করেছেন। তাদের একজনের নাম ডেরেক চাওভিন ও আরেকজনের নাম ট থাও।

ওই হত্যাকাণ্ডের একটি ভিডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে, জর্জ ফ্লয়েড নামে কৃষ্ণাঙ্গ যুবকের শরীর গাড়ির নিচে রেখে গলা বের করে হাঁটু দিয়ে চেপে ধরেছেন এক পুলিশ। শ্বেতাঙ্গ পুলিশ অফিসারকে ফ্লয়েড বলছিলেন- ‘আমি দম নিতে পারছি না।’ তাতেও মন গলেনি। মৃত্যুর আগে তাকে ছেড়ে দেয়নি।

ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই) জানিয়েছে, সোমবার সন্ধ্যায় ঘটা মিনেপোলিসের ঘটনাটি তদন্ত করবে তারা। মিনেসোটা পুলিশ জানিয়েছে, পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তির পর ‘মেডিকেল ইনসিডেন্টে’ তার মৃত্যু হয়েছে ৪৬ বছর বয়সী ফ্লয়েডের। তিনি একটি রেস্টুরেস্টে নিরাপত্তাকর্মী হিসেবে কাজ করতেন।

ফ্লয়েডকে জালিয়াতির অভিযোগে সোমবার আটক করা হয়েছিল। পুলিশের গাড়ির নিচে তাকে যখন হাঁটু দিয়ে দম চেপে ধরা হয়েছিল তখন খালি গায়ে ছিলেন তিনি। গুঙিয়ে গুঙিয়ে বলছিলেন- ‘প্লিজ, প্লিজ, প্লিজ আমি শ্বাস নিতে পারছি না। দয়া করো।’ এর কয়েক মিনিট পর একজন পুলিশ অফিসারকে বলতে শোনা যায়- ‘রিলাক্স’। ফ্লয়েড জবাব দেন- ‘ম্যান, আমি দম নিতে পারছি না ‘

কিছুক্ষণের মধ্যেই নিথর হয়ে যান ফ্লয়েড। গলায় চেপে ধরা হাঁটু তুলে আনেন শ্বেতাঙ্গ পুলিশ অফিসারটি। এই ঘটনা যেদিন ঘটে সেইদিনই আর একটি ভিডিও ভাইরাল হয় যেটি ছিল নিউইয়র্কে এক শ্বেতাঙ্গ নারীর পোষা কুকুর নিয়ে তুচ্ছ একটা বিতর্কের জেরে পুলিশ ডাকার এবং এর জন্য পুলিশের এক কৃষ্ণাঙ্গ ব্যক্তির ওপর চড়াও হবার ঘটনার।

যুক্তরাষ্ট্রে শ্বেতাঙ্গ পুলিশের হাতে কৃষ্ণাঙ্গ যুবক হত্যার ঘটনা এটাই প্রথম নয়। পুলিশের গুলিতে শুধুমাত্র ২০১৯ সালেই মারা গেছে এক হাজারের বেশি। জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যু পুলিশের হাতে মৃত্যুর ঘটনার উদ্বেগজনক পরিসংখ্যান সামনে এনেছে।

ওয়াশিংটন পোস্ট সংবাদপত্রের সংগৃহীত তথ্য অনুযায়ী ২০১৯ সালে আমেরিকায় পুলিশের গুলিতে মারা গেছে ১০১৪ জন এবং বিভিন্ন জরিপে দেখা গেছে আমেরিকায় পুলিশের গুলিতে নিহতদের মধ্যে তুলনামূলকভাবে বেশিরভাগই কৃষ্ণাঙ্গ আমেরিকান।

আরও পড়তে পারেন:

[যুক্তরাষ্ট্রে আফ্রিকান কৃষ্ণাঙ্গদের হত্যার পেছনে মোসাদ-সিআএর হাত রয়েছে: মার্কিন অধিকারকর্মী]

[১০০ কোটি ভ্যাকসিন তৈরি করবে নোভাভ্যাক্স]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *