বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে সম্পর্ক ছেদ করল যুক্তরাষ্ট্র

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করল যুক্তরাষ্ট্র

আমেরিকা লিড নিউজ

ওয়াশিংটন, যুক্তরাষ্ট্র- বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) সঙ্গে সব রকমের সম্পর্ক ছিন্ন করল যুক্তরাষ্ট্র। শুক্রবার হোয়াইট হাউসে এক সংবাদ সম্মেলনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সম্পর্ক ছিন্ন করার ঘোষণা দেন। বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের প্রার্দুভাবের শুরু থেকেই এমন হুমকি দিয়ে আসছিলেন ট্রাম্প। এবার তিনি আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিলেন। খবর আলজাজিরার।

ট্রাম্প বলেন,‌ ‘জরুরীভাবে নিজেদের সংস্কারে তারা আমাদের অনুরোধ রাখতে ব্যর্থ হয়েছে। আমরা আজ থেকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে আমাদের সম্পর্কের ইতি টানছি।’ প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের এমন সিদ্ধান্ত বিশ্ব স্বাস্থ্যের জন্য ‌’হতাশাজনক’ বলে আখ্যায়িত করেছে জার্মানি।

চীনের চাপে ডব্লিউএইচও কোভিড-১৯ বা করোনাভাইরাস নিয়ে বিস্তারিত তথ্য জানাতে ব্যর্থ হয়েছে বলে শুরু থেকেই অভিযোগ করে আসছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। চীনের প্রতি সংস্থাটির পক্ষপাতের অভিযোগও রয়েছে ট্রাম্পের। তার দাবি, ডব্লিউএইচও বেইজিংকে করোনভাইরাস মহামারী সম্পর্কে জবাবদিহিতার আওতায় আনতে ব্যর্থ হয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থায় এতদিন ধরে যুক্তরাষ্ট্রই সবচেয়ে বেশি অর্থ দিতো; কেবল ২০১৯ সালেই তাদের সাহায্যের পরিমাণ ছিল ৪০ কোটি ডলারের বেশি। ট্রাম্প ঘোষণা দিলেও ডব্লিউএইচও’র সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্কচ্ছেদ কবে থেকে কার্যকর হচ্ছে, তা স্পষ্ট হওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

যুক্তরাষ্ট্র এক বছরের নোটিস দিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করতে পারবে বলে ১৯৪৮ সালে মার্কিন কংগ্রেসের এক যৌথ ঘোষণায় বলা হয়েছিল। শুক্রবার ট্রাম্প হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের বলেন, ‘অনুরোধ ও প্রয়োজন সত্ত্বেও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা তাদের অভ্যন্তরীণ সংস্কার না করায় আমরা তাদের সঙ্গে সব সম্পর্কের ইতি টানছি, এবং ওই তহবিল বিশ্বের অন্যান্য জনস্বাস্থ্য খাতে দান করা হবে।’

যুক্তরাষ্ট্র করোনাভাইরাসের আঘাতে জর্জরিত শীর্ষ দেশ। চীনে ভাইরাস শুরু হলেও যুক্তরাষ্ট্রই এখন এর মূলকেন্দ্র। দেশটিতে আজকে পর্যন্ত আক্রান্ত সংখ্যা ১৮ লাখ ছড়িয়েছে। মৃতের সংখ্যাও লাখ ছাড়িয়ে গেছে।

ট্রাম্প এ বছর নির্বাচনের জন্য প্রচার চালাচ্ছেন এবং করোনাভাইরাস মহামারী যুক্তরাষ্ট্রে ভয়াবহভাবে ছড়িয়ে পড়ায় বেশ সমালোচিত হয়েছেন। অনেকে বলছেন, নিজের দোষ ঢাকতেই চীনকে দোষারোপ করছেন ট্রাম্প। তবে তিনি বরাবরই অভিযোগ করে আসছেন করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরুর প্রথম থেকে চীনের পক্ষপাতী বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

এক টুইট বার্তায় জার্মান স্বাস্থ্যমন্ত্রী জেনস স্পেন জানিয়েছেন, এটি আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্যের জন্য হতাশাব্যঞ্জক প্রতিক্রিয়া। ভবিষ্যতে সংস্থাটির মধ্যে কোন পার্থক্য আনতে হলে এর সংস্কার করা দরকার। এবং ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন (ইইউ) অবশ্যই একটি নেতৃস্থানীয় ভূমিকা নিতে হবে এবং আরও আর্থিকভাবে এগিয়ে আসতে হবে। এটি আমাদের ইইউ প্রেসিডেন্ট হওয়ার জন্য আমাদের বিএমজি অগ্রাধিকারগুলির একটি।

আরও পড়তে পারেন:

কৃষ্ণাঙ্গ যুবক হত্যায় বিক্ষোভে উত্তাল যুক্তরাষ্ট্র

ঘাড়ে পা দিয়ে কৃষ্ণাঙ্গ যুবক হত্যা করল মার্কিন পুলিশ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *