চীনা প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে মামলা

করোনা ছড়ানো নিয়ে চীনা প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে মামলা

চীন লিড নিউজ

বিহার, ভারত- দুনিয়াজুড়ে করোনা ছড়ানো নিয়ে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের বিরুদ্ধে ভারতের বিহারে একটি মামলা হয়েছে। রাজ্যের পশ্চিম চামপারান জেলা আদালতে বৃহস্পতিবার মামলাটি ঠুকেছেন মুরাদ আলি নামের একজন আইনজীবী। এই মামলায় সাক্ষী হিসেবে রাখা হয়েছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে।

আইনজীবী মুরাদ আলির অভিযোগ, সারাবিশ্বে করোনা ছড়ানোর কাজটা হাত মিলিয়ে করেছে চীন আর বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। আর এতে করে দেশে দেশে লাখ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। অর্থনীতি ও ব্যবসা-বাণিজ্য ধ্বংস হয়ে গেছে। পৃথিবীর সবপ্রান্তে থমকে গেছে জীবন। খবর এনডিটিভি ও টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

করোনা মহামারীর জন্য চীনকে দায়ী করে ইতোমধ্যে আরও বেশ কয়েকটি দেশ মামলা করেছে। এবার চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রোস আধানম ঘেব্রেইসাসকে দায়ী করে বিহারের চামপারান জেলার বেটিয়ার কোর্ট অব জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেইট (সিজেআইএম) মামলা দায়ের করা হল।

মামলাটি করা হয়েছে আইপিসির (ইনফেকশন প্রিভেনশন অ্যান্ড কনট্রোল) ধারা নম্বর ২৬৯, ২৭০, ২৭১, ৩০২, ৩০৭, ৫০০ ও ১২০বি’র আওতায়। আদালতও মুরাদ আলীর অভিযোগ শুনতে রাজি হয়েছে। শুনানির তারিখ দেয়া হয়েছে আগামী ১৬ জুন। মুরাদ আলির বলছেন, সংবাদমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে প্রচারিত হওয়া তথ্যই তার যাবতীয় অভিযোগের ভিত্তি।

করোনাভাইরাস ছড়ানোর জন্য গত কয়েক সপ্তাহ ধরে চীনকে অভিযোগ করে বক্তব্য দিয়ে আসছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। করোনায় যুক্তরাষ্ট্রে লক্ষাধিক প্রাণহানির পর তিনি বলেন, ‘কোভিড-১৯ চীনের পক্ষ খুবই বাজে একটা উপহার।’ তবে এ ব্যাপারে চীনের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে কোনো অভিযোগ করেননি মোদি।

করোনা ইস্যুতে ভারতে চীনা প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে মামলা অবশ্য ভারতে এটিই প্রথম নয়। এর আগে বিহারের মুজফফরপুর অঞ্চলেও একই অভিযোগে তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছিল। সেই মামলার শুনানিও হয়েছিল। তবে শেষ পর্যন্ত সেটির পরিণতি কি হয়েছে সেটা জানা যায়নি।

চীনের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের মিসৌরি অঙ্গরাজ্যের মামলা

করোনা ছড়ানো ও এ নিয়ে তথ্য গোপনের অভিযোগে চীন সরকারের বিরুদ্ধে মামলা করেছে যুক্তরাষ্ট্রের মিসৌরি রাজ্য। গত এপ্রিলে বিশ্বব্যাপী মহামারির জন্য দেশটির সরকারি কর্মকর্তারা দায়ী বলে অভিযোগ করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল আদালতে মামলাটি দায়ের করেছেন কয়েকজন শীর্ষ আইনজীবী।

মিসৌরিসহ বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারিতে মৃত্যু, দুর্ভোগ ও অর্থনৈতিক ক্ষতির জন্য চীন দায়ী বলে অভিযোগ করেছে যুক্তরাষ্ট্রের এই রাজ্য। মিসৌরির অ্যাটর্নি জেনারেল এরিক স্মিট বলেন, ‘চীন সরকার বিশ্বের কাছে মিথ্যা বলেছে। এ ভাইরাসের বিপদ ও সংক্রমণ সম্পর্কে তারা সঠিক তথ্য দেয়নি। ভাইরাসটির বিস্তার থামানোর জন্য যথেষ্ট চেষ্টা করেনি। নিজেদের এই কর্মকাণ্ডের জন্য তাদেরকে জবাব দিতে হবে।’

আরও পড়ুন:

[করোনার উৎপত্তি: চীনের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রস্তাব পাস]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *