ভারতে বজ্রপাতে একদিনে শতাধিক মৃত্যু

বজ্রপাতে ভারতে একদিনেই শতাধিক মৃত্যু

ভারত লিড নিউজ

ভারতে বজ্রপাতে একদিনে  শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়েছে। কালবৈশাখী ঝড়ের সঙ্গে ভয়াবহ বজ্রপাতে বিহার ও উত্তরপ্রদেশে এসব মৃত্যু হয়েছে। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার বিহারে ৮৩ জন ও উত্তরপ্রদেশে ২৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। আরও কয়েকজন আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। আশঙ্কা করা হচ্ছে, আরও কয়েকজনের মৃত্যু খবর হয়ত জানা যায়নি। ডয়চে ভেলে এখবর জানিয়েছে। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

সিনিয়র দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা অভিনাশ কুমার জানিয়েছেন, উত্তর-পূর্বের রাজ্য বিহারে ৮৩ জনের মৃত্যু হয়েছে বজ্রপাতে। যা গত কয়েক বছরের মধ্যে বজ্রপাতে একদিনে সর্বাধিক মৃত্যু। এর আগে ২০১৫ ও ২০১৭ সালে বজ্রপাতে একদিনে সর্বোচ্চ ৫০ জনের মৃত্যু হয়েছিল। বিহারের প্রতিবেশী রাজ্য উত্তর প্রদেশে বজ্রাঘাতে মৃত্যু হয়েছে অন্তত ২০ জনের।

বিহারে সবচেয়ে বেশি প্রাণহানি ঘটেছে উত্তরাঞ্চলের গোপালগঞ্জ জেলায়। সেখানে ১৩ জন নিহত হয়েছে। এ ছাড়া মধুবানিতে ৮ জন, সিওয়ান ও ভাগলপুরে ৬ জন করে এবং পূর্ব চাম্পারান, দরভাঙ্গা, ভাগলপুর ও বাঙ্কাতে পাঁচ জন করে মারা গেছে। অন্যদিকে, উত্তরপ্রদেশে সবচেয়ে বেশি ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে দেওরিয়ায়। এ ছাড়া প্রয়োগরাজে ৬ জন, আমবেদকরনগরে ৩ জন ও বারাবানকিতে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

আবহাওয়াবিদরা বলছেন, আগামী দিনগুলোতে আরও ঝড় হবে। কর্মকর্তারা স্থানীয়দের সতর্ক ও ঘরে থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। বজ্রাঘাতে মৃত্যুর ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন ভারতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। হিন্দিতে এক টুইট করে তিনি বলেছেন, ভারী বর্ষণ এবং বজ্রপাতের কারণে বিহার এবং উত্তরপ্রদেশের কয়েকটি জেলায় বেশ কয়েকজনের মৃত্যুর মর্মান্তিক খবর পেয়েছি। রাজ্য সরকার তাৎক্ষণিকভাবে ত্রাণ তৎপরতা শুরু করেছে।

বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নিতীশ কুমার রাজ্যে বজ্রপাতে নিহতদের পরিবার প্রতি চার লাখ রুপি ক্ষতিপূরণ দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এবং বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নিতিশ কুমার বজ্রপাতে নিহতদের পরিবারকে ৪ লাখ রুপি করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

সর্বশেষ পাওয়া তথ্য অনুসারে, ২০১৮ সালে ভারতে বজ্রাঘাতে মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ৩০০ জনের বেশি মানুষের। ২০০৫ সালের পর থেকে প্রতি বছর অন্তত ২ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে। ভারতে বজ্রাঘাতে অধিক সংখ্যক মৃত্যুর জন্য বিশ্বের অন্যান্য স্থানের তুলনায় দেশটিতে বাইরে কাজ করাকে একটি কারণ হিসেবে মনে করা হয়। ২০১৮ সালে দক্ষিণ ভারতের অন্ধ্র প্রদেশ রাজ্যে মাত্র ১৩ ঘণ্টায় ৩৬ হাজার ৭৪৯ টি বজ্রাঘাত হয়েছিল।

আরও পড়ুন:

ফেয়ার অ্যান্ড লাভলী কেন আলোচনায়

সিকিমে চীন-ভারত সেনাদের মধ্যে সংঘর্ষ, হাতাহাতি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *