একদিনে সর্বোচ্চ করোনায় মৃত্যু

একদিনে সর্বোচ্চ ৬৪ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৬৮২

লিড নিউজ

ঢাকা- করোনাভাইরাসে সংক্রিমত হয়ে দেশে একদিনে সর্বোচ্চ ৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় এই মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। সব মিলে দেশে এখন পর্যন্ত করোনায় মারা গেছেন ১ হাজার ৮৪৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৩ হাজার ৬৮২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। দেশে এ পর্যন্ত মোট ১ লাখ ৪৫ হাজার ৪৮৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে আজ মঙ্গলবার এই তথ্য জানানো হয়। সেখানে এসব তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা।

অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা জানান, গত একদিনে (২৪ ঘণ্টা) য় ১৮ হাজার ৮৬৩টি নমুনা সংগ্রহ এবং ১৮ হাজার ৪২৬টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত ৭ লাখ ৬৬ হাজার ৪০৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ৯৮ শতাংশ।শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৪০ দশমিক ৯৮ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ২৭ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের মধ্যে ৫২ জন পুরুষ এবং ১২ জন নারী। বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায় যায়, ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে ৩ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে ১১ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ১৬ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৬ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ২১ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ৭ জন রয়েছেন।

৩১ জন ঢাকা বিভাগের, ১২ জন চট্টগ্রাম বিভাগের, ৭ জন রাজশাহী বিভাগের, ৭ জন খুলনা বিভাগের, ২ জন সিলেট বিভাগের, ৩ জন বরিশাল বিভাগের এবং ২ জন ময়মনসিংহ বিভাগের। তাদের মধ্যে হাসপাতালে ৫১ জন এবং বাসায় ১৩ জন মারা গেছেন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে রাখা হয়েছে ৪৪৯ জনকে। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৪ হাজার ১৪৫ জন। আইসোলেশন থেকে ২৪ ঘণ্টায় ৫৪৪ জন এবং এখন পর্যন্ত ১১ হাজার ৪৪০ জন ছাড় পেয়েছেন।

এখন পর্যন্ত আইসোলেশন করা হয়েছে ২৬ হাজার ৫৮৭ জনকে। গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাতিষ্ঠানিক ও হোম কোয়ারেন্টিন মিলে কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে ২ হাজার ৫৪২ জনকে। এখন পর্যন্ত কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে ৩ লাখ ৬৩ হাজার ৮৬৬ জনকে। কোয়ারেন্টিন থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ২ হাজার ৮৩৪ জন এবং এখন পর্যন্ত মোট ২ লাখ ৯৯ হাজার ১৯৯ জন ছাড় পেয়েছেন। বর্তমানে মোট কোয়ারেন্টিনে আছেন ৬৪ হাজার ৬৬৭ জন।

আরও পড়ুন:

৬ হাজার ভুয়া রিপোর্ট দিয়েছে রিজেন্ট হাসপাতাল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *