ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট করোনায় আক্রান্ত

আমেরিকা লিড নিউজ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো।  জ্বরসহ বিভিন্ন উপসর্গে ভুগতে থাকা বোলসোনারো সোমবার চতুর্থবারের মতো তার নমুনা পরীক্ষা করান। তাতে তার করোনাভাইরাস পজিটিভ আসে। খবর বিবিসির।

করোনাভাইরাসের ঝুঁকিকে ছোট করে দেখিয়ে মহামারীর শুরু থেকেই বিভিন্ন মন্তব্য করে আসছিলেন ব্রাজিল প্রেসিডেন্ট, যে কারণে তাকে সমালোচিত হতে হয়েছে বিশ্বজুড়ে।

ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট দীর্ঘ দিন ধরেই বলে আসছিলেন যে করোনাভাইরাসে তেমন কোন ঝুঁকি নেই। তার যুক্তি ছিল, এটা (করোনা) সামান্য ধরনের ফ্লু । তিনি লকডাউনের বিরোধী ছিলেন এবং মাস্ক পরা নিয়েও ব্যঙ্গ-বিদ্রূপ করতেন। অবশ্য পরে তিনি বলেন, তার জ্বর এখন কমে যাচ্ছে এবং এখন তিনি ভালো বোধ করছেন।

বলসোনারোর বয়স ৬৫ – তাই তিনি কোভিড-১৯ সংক্রমণের উচ্চ-ঝুঁকিতে আছেন । তবে তিনি বলছেন তিনি হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন এবং এজিথ্রোমাইসিন খাচ্ছিলেন । করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় এ দুটো ওষুধের কার্যকারিতার কথা বরাবরই বলে আসছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

নিউ ইয়র্ক টাইমস পত্রিকা জানাচ্ছে, শুধু জাইর বলসোনারোই না তার ক’জন সহকারীও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। গত শনিবার জেয়ার বলসোনারো যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সে দেশে মার্কিন দূতের এক ভোজসভায় যোগ দিয়েছিলেন।

ব্রাজিলে এখন করোনাভাইরাস সংক্রমণ হুহু করে বাড়ছে। সোমবার পর্যন্ত দেশটিতে করোনাভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যা ছিল ৬৫ হাজারের বেশি, আর আক্রান্তর সংখ্যা ইতোমধ্যে ১৬ লক্ষ ছাড়িয়ে গেছে – যা যুক্তরাষ্ট্রের পর পৃথিবীর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। তবে এমন পরিস্থিতি সত্ত্বেও বলসোনারো লকডাউন শিথিল করার কথা বলে যাচ্ছিলেন।

সোমবার তিনি মাস্ক পরা সংক্রান্ত নিয়মের কড়াকড়ি শিথিল করেন এবং আঞ্চলিক গভর্নরদের লকডাউন শিথিল করার আহ্বান জানান। এপ্রিল মাসে তিনি বলেছিলেন, তিনি নিজে যদি কখনো এ ভাইরাসে আক্রান্ত হন তাহলে তার তেমন কিছুই হবে না।

নিউ ইয়র্ক টাইমস পত্রিকা জানাচ্ছে, শুধু মি. বলসোনারোই না, তার ক’জন সহকারীও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। গত শনিবার জেয়ার বলসোনারো যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সে দেশে মার্কিন দূতের এক ভোজসভায় যোগ দিয়েছিলেন।

আরও পড়ুন:

১১ লক্ষাধিক শিক্ষার্থীকে যুক্তরাষ্ট্র ছাড়তে হতে পারে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *