স্বাস্থ্যখাতে অনিয়মের বিরুদ্ধে শুদ্ধি অভিযান: কাদের

লিড নিউজ

ঢাকা- স্বাস্থ্যখাতে অনিয়মের বিরুদ্ধে চলমান অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে মন্তব্য করেছেন সরকারি দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, নমুনা পরীক্ষার ভুয়া সনদ, প্লাজমা ডোনেশন, সুরক্ষা সামগ্রী ক্রয়, হাসপাতালের যন্ত্রপাতি সংগ্রহসহ স্বাস্থ্য খাতে নানা অনিয়মের বিরুদ্ধে সরকারের শুদ্ধি অভিযান শুরু হয়েছে।

রিজেন্ট হাসপাতালের বিরুদ্ধে করোনাভাইরাস শনাক্ত করার টেস্টের ভুয়া সনদ দেয়ার অভিযোগে হইচইয়ের পর বৃহস্পতিবার সরকারি বাসভবন থেকে দলীয় সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে যুক্ত হয়ে ভিডিও কনফারেন্সে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। করোনা সংক্রমিত রেড জোনভুক্ত জেলা ও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত জেলার বিভিন্ন হাসপাতালে উন্নত মানের ভাইরাসপ্রতিরোধী সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে এ ভিডিও কনফারেন্সের আয়োজন করে ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপকমিটি।

আরও পড়ুন ৬ হাজার ভুয়া রিপোর্ট দিয়েছে রিজেন্ট হাসপাতাল

ঝিনাইদহে করোনা আক্রান্ত ৩০০ ছাড়াল

বাংলাদেশে মার্চ মাসে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হবার পর থেকে সরকারের পক্ষ থেকে নমুনা পরীক্ষা, চিকিৎসা এবং সুরক্ষা সরঞ্জামাদি সংগ্রহ ও বিতরণ নিয়ে নানা ধরণের অনিয়মের অভিযোগ ওঠে।

এর মধ্যে স্বাস্থ্যখাতে অনিয়ম নিয়ে দুর্নীতি বিরোধী সংস্থা টিআইবি অভিযোগ করে, হাসপাতালে রোগী ভর্তিতে অনিয়ম থেকে শুরু করে এন-৯৫ মাস্কসহ বিভিন্ন চিকিৎসা সরঞ্জাম কেনাকাটায় অনিয়ম-দুর্নীতি উদ্বেগজনকহারে বৃদ্ধি পেয়েছে। র‍্যাব বলছে, ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দলের পরিচয় দিয়ে রিজেন্ট হাসপাতালের মালিক মোহাম্মদ সাহেদ দিনের পর দিন অনিয়ম চালিয়ে গেছেন।

স্বাস্থ্যখাতে অনিয়মের এ ঘটনার প্রতি ইঙ্গিত করে ওবায়দুল কাদের বলেন, অপরাধীর কোনো দলীয় পরিচয় নেই, যতই ক্ষমতাধর হোক তাকে আইনের আওতায় আসতে হবে। তিনি হুঁশিয়ার করেন, যারা জনগণের অসহায়ত্ব নিয়ে অবৈধ ব্যবসা করছে, প্রতারণা করছে, তাদের বিরুদ্ধে সরকার জিরো টলারেন্স নীতিতে অটল।

সেতুমন্ত্রী বলেন, সরকারের নানামুখী উদ্যোগের অংশ হিসেবে ৫০ লাখ মানুষের মধ্যে ২ হাজার ৫০০ টাকা প্রদান করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে কিছু কিছু অসামঞ্জস্য ধরা পড়ায় সরকার নিজ উদ্যোগেই তদন্ত করে যাচাই-বাছাইয়ের মাধ্যমে প্রকৃত অসহায় ব্যক্তিদের সহায়তার টাকা দিচ্ছে।

করোনা সংকটের পাশাপাশি বন্যাদুর্গত অসহায় মানুষের সুরক্ষা করা সরকারের জন্য নতুন আরেকটি চ্যালেঞ্জ উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রতিবছর নানা ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় বাংলাদেশের সক্ষমতা বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হয়েছে। সংকটের সাহসী ও মানবিক নেতৃত্ব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হলেন মানবিকতার আধার ও আস্থার ঠিকানা। তিনি সব সময় অসহায় মানুষের পাশে আছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *